৭ কলেজকে অধিভুক্তির পূর্ব প্রস্তুতি ছিল না: ঢাবি

নিউজ ডেস্ক: পূর্ব প্রস্তুতি ছাড়া অপরিকল্পিতভাবে হঠাৎ করে ঢাকার সাতটি সরকারি কলেজকে অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রহণের ফলে অসুবিধা সৃষ্টি হয়েছে বলে স্বীকার করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে শনিবার প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে একথা বলা হয়।

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয় ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও তিতুমীর কলেজ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পূর্ব প্রস্তুতি ছাড়া অপরিকল্পিতভাবে হঠাৎ করে ঢাকার সাতটি সরকারি কলেজকে অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রহণের ফলে অসুবিধা সৃষ্টি হয়েছে।

এতে বলা হয়, তবে স্বতন্ত্র লোকবল ও ব্যবস্থাপনা দ্বারা অধিভুক্ত বা উপাদানকল্প শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে বিধায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও সামগ্রিক কার্যক্রম বাধাগ্রস্থ হবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হওয়ার পর কয়েক দফা আন্দোলনে নামেন ৭ কলেজের শিক্ষার্থীরা।

গত বছরের ২০ জুলাই ফল প্রকাশ ও পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে, অক্টোবরে চতুর্থ বর্ষের ফল প্রকাশের দাবিতে এবং সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের ফল প্রকাশ ও তৃতীয় বর্ষের ক্লাস শুরুর দাবিতে আন্দোলন হয়।

এরই মধ্যে গত সপ্তাহে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

কলেজগুলোকে কয়েকটি বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অধিভুক্ত বা উপাদানকল্প শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত নিজ নিজ কলেজের বা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী; তাদের পাঠদান ও পরীক্ষা কার্যক্রম স্ব স্ব কলেজ ক্যাম্পাসে পরিচালিত হবে।

এতে বলা হয়, ওই শিক্ষার্থীদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন পরিচয়পত্র দেয়া হবে না; তারা পূর্বের ন্যায় নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পরিচয়পত্র গ্রহণ করবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন বা পরিবহন বা স্বাস্থ্যসেবা বা পাঠাগার প্রভৃতির কোনটিই ব্যবহার করার সুযোগ উল্লিখিত কলেজ বা ইনস্টিউটের শিক্ষার্থীদের নেই।

বিজ্ঞিপ্ততে জানানো হয়, অধিভুক্ত বা উপাদানকল্প শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ভর্তি কিংবা ব্যবহারিক পরীক্ষা বা মৌখিক পরীক্ষা বা ব্যাংকিং কার্যক্রম প্রভৃতি নিজ নিজ কলেজ ক্যাম্পাসে বা সুবিধাজনক স্থানে অনুষ্ঠিত হবে; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নয়। 

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, উল্লিখিত কলেজ বা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা-সহায়ক কার্যক্রমও নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস শুধুমাত্র এ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্রধারী শিক্ষার্থীদের জন্যই উন্মূক্ত।