দাকোপে ৯ জুয়াড়ী আটক

দাকোপ প্রতিনিধি: দাকোপ উপজেলায় গত শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) বিকালে দাকোপ সার্কেল অফিসার অভিযান চালিয়ে নয় জন জুয়াড়ীকে আটক করে।

থানা সুত্রে জানা গেছে, তাদের বিরুদ্ধে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬.০৫ টায় জুয়া আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং-০৮, তারিখ ১৯.০১.১৮ ইং।

জানা যায়, চালনা বাজার চুনকুড়ি খেয়াঘাট সংলগ্ন ইনতাজ মেম্বারের বাড়িতে জুয়ার আসর বসে। এমন সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সার্কেল অফিসার মোঃ বদরুদ্দোজার নের্তৃতে তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এসময় ঘটনা স্থান থেকে তাসসহ ৪৩ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, উপজেলা সদর চালনা বাজারের মোঃ ফুলমিয়া খলিফার পুত্র জালাল খলিফা(৩০), উপজেলার বাজুয়া ইউনিয়নের বাজুয়া গ্রামের জীতেন্দ্রনাথ দাসের পুত্র ইউপি সদস্য উৎপল কুমার দাস(৩০), একই ইউনিয়নের চুনকুড়ি গ্রামের হরিপদ মন্ডলের পুত্র উত্তম মন্ডল(২৮), কামারখোলা ইউনিয়নের কালিনগর গ্রামের মৃত মুকিম গাজীর পুত্র মোঃ তাবারেক গাজী(৩২), উপজেলার সাহেবের আবাদ গ্রামের মৃত হাজরা মন্ডলের পুত্র হরিপদ মন্ডল(৪৩), বাজুয়া ইউনিয়নের চুনকুড়ি গ্রামের রনজিৎ ঢালীর পুত্র শিক্ষক সরোজিত ঢালী(৪৩), রামপালের ভাগা গ্রামের মৃত নাজিম উদ্দিন শেখের পুত্র মোঃ ইয়াসিন শেখ(৩৩), বটিয়াঘাটা উপজেলার আমতলা গ্রামের মৃনাল রায়ের পুত্র তন্ময় রায়(২৯), এবং একই উপজেলার কায়েমখোলা গ্রামের ছহির উদ্দিন শেখের পুত্র মোঃ ওলিয়ার শেখ(৪৫)।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, চুনকুড়ি শহীদ স্মৃতি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সরোজিত ঢালী নেতৃত্বে ও বাজুয়া ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য উৎপল কুমার দাসের পরিচালনায় দীর্ঘদিন ধরে এ স্থানে জুয়ার আসর চলছে।

পুলিশের ঝামেলা এড়াতে নাম প্রকাশ না করার সর্তে একটি সুত্র জানায়, আসামীদের আদালতে সোপর্দ করার পরিবহন ভাড়া ও সহজে জামিনের ব্যবস্থার কথা বলে থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। অবশেষে গতকাল শনিবার সকালে জুয়াড়ীদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ।

প্রিন্স, ঢাকা