আজ মিরপুর স্টেডিয়ামের ১০০তম ম্যাচ

নিউজ ডেস্ক: ইংলেন্ডের যেমন লর্ডস, তেমনি বাংলাদেশের হলো মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনে অনেক আগেই লর্ডসকে ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশের এই ‘হোম অব ক্রিকেট’। আজ নতুন মাইলফলক স্পর্শ করতে যাচ্ছে শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ওয়ানডেতে বিশ্বের ষষ্ঠ ভেন্যু হিসেবে ‘সেঞ্চুরি’ ম্যাচ আয়োজনের রেকর্ড গড়ছে বাংলাদেশের এই স্টেডিয়াম।

আজ মিরপুরের স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেটে শ্রীলংকা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ম্যাচটি শততম। তবে অন্য পাঁচটি ভেন্যুর চেয়ে দ্রুততম সময়ে শততম ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে মিরপুরে। ১১ বছরের বেশি সময়ে মিরপুরে শততম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচের আয়োজনের বিশেষ দিনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পক্ষ থেকে আলাদা আয়োজন চোখে পড়েনি।

২০০৬ সালের ৮ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো মিরপুরে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের মধ্যকার আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ হয়েছিল। তবে শততম ওয়ানডেতে বাংলাদেশ না থাকলেও সাক্ষী থাকছে জিম্বাবুয়ে। দীর্ঘ পথচলায় মিরপুরে বাংলাদেশ পেয়েছে অনেক ঐতিহাসিক মুহূর্ত। দ্বিপক্ষীয় সিরিজে জয়ের পাশাপাশি মিরপুরেই বাংলাদেশ টেস্টে হারিয়েছে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়াকে।

ওয়ানডেতে ভারত-পাকিস্তানের বিপক্ষে বিজয় কেতন উড়িয়েছে। এ মাঠে হয়েছিল ২০১৪ সালের আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচ। এ মাঠেই ২০১৪ সালে শ্রীলংকা জিতেছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ। আজ মিরপুর মাঠের মাইলফলকের দিনে সাক্ষী থাকছে শ্রীলংকাও।

সর্বোচ্চ ওয়ানডে ম্যাচ হয়েছে যে ভেন্যুগুলোয় সেই ভেন্যু,ম্যাচ,সময় ।
শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম ২৩১ ম্যাচ ১৯৮৪-২০১৭, সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড ১৫৪ ম্যাচ ১৯৭৯-২০১৭, মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড ১৪৮ম্যাচ ১৯৭১-২০১৮,হারারে স্পোর্টস ক্লাব ১৩৬ ম্যাচ ১৯৯২-২০১৭, আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম ১২৪ ম্যাচ ১৯৮৬-২০১৭, শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম ১০০*ম্যাচ ২০০৬-২০১৮।