রানীশংকৈলে পিকেএফএফ ও ইএসডিও’র পিঠা উৎসব ও পৌষ মেলা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: উপজেলা চত্বরে চলছে পিঠা বানানোর ধুম। অপর দিকে শিক্ষার্থীদের মধ্যে চলছে কয়েকটি প্রতিযোগীতা। যা নিয়ে ব্যাপক উচ্ছসিত শিক্ষার্থীরা। বিদ্যালয় থেকে দল বেঁধে তারা এসেছেন প্রতিযোগীতাগুলোতে অংশ নিতে। গতকাল সোমবার (১৫ জানুয়ারী) ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল উপজেলা চত্বরে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

পল­ী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসফে) ও ইকো সোশ্যাল ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও) ওই পিঠা উৎসব ও পৌষ মেলা, গনিত মেলা, চিত্রাঙ্কন ও সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগীতার আয়োজন করে। যার মধ্য দিয়ে হারিয়ে যাওয়া বাঙালী সংস্কৃতির সঠিক চিত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে তুলে ধরা হয়। পিকেএসএফ ও ইএসডিও’র এই উদ্যোগ শিশুদের সামাজিক ও সংস্কৃতিক বিকাশে ভূমিকা রাখবে বলে অনুষ্ঠানে উপস্থিত বক্তারা আশা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে স্বত:স্ফূর্তভাবে প্রতিযোগীতায় অংশ নেয় হরিপুর উপজেলার ৮টি বিদ্যালয়ের সাড়ে ৩’শ এর অধিক শিক্ষার্থী প্রতিযোগীতাগুলোতে অংশ নেয়। প্রতিযোগীতায় অংশ নিতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে দেখা যায় ব্যাপক উদ্দীপনা আর উচ্ছাস। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতায় শীতকালীন গ্রামীন দৃশ্য অংকনে মেতে উঠেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় রং পেন্সিলে আচরে ফুটে উঠে শীতের কুয়াশা, খেজুর গাছ, গ্রামীন ধানের মাঠ তথা শীতের সকাল। পরে সুন্দর হাতের লিখা প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। যাতে শিক্ষার্থীরা মন ও মনন মিশিয়ে সুন্দরভাবে হাতের লিখা উপস্থাপন করে। এর পর শিক্ষার্থীদের মধ্যে গনিতের সমাধান নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় গনিত মেলা। পিঠা উৎসব ও পৌষ মেলায শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করা হয় হরেক রকমের পিঠা।

প্রতিযোগীতা শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁও এর সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য সেলিনা জাহান লিটা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মো: নাহিদ হাসান, উপজেলা চেয়ারম্যান আইনুল হক, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার পুতুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: তাজউদ্দিন আহমেদ।

এ ছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রানীশংকৈল পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, রানীশংকৈল ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক প্রশান্ত কুমার বসাক, আর ডি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক নগেন্দ্র নাথ, বিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মকসেদুর রহমান, রানীশংকৈল সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খায়রুল আলম, ইএসডিও’র সিনিয়র কো-অর্ডিনেটর শাহ মো: আমিনুল হক, জোনাল ম্যানেজার আনোয়ার হোসেন, কর্মসূচী সংগঠক খোকন দাস ও মো: আল হেলাল প্রমুখ। পরে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মধ্যে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

সুন্দর হাতে লিখা প্রতিযোগীতায় রানীশংকৈল সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সুমাইয়া আক্তার মিথিলা প্রথম, বলিদ্বার উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমা আক্তার দ্বিতীয়, বিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মেহের নেগার তৃতীয় স্থান অধিকার করে। গনিত প্রতিযোগীতায় রানীশংকৈল সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মুসফিকা রহমান প্রথম, জয়িতা বর্মন তৃনা দ্বিতীয়, সেমভি রায় শিপ্রা তৃতীয় স্থান অধিকার করে। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতায় রানীশংকৈল সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের আতিকা নেওয়াজ প্রথম, বিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সুমী আক্তার দ্বিতীয় ও সন্ধ্যা রানী রায় তৃতীয় স্থান পান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঠাকুরগাঁও এর সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য সেলিনা জাহান লিটা শিশু বিকাশের মত প্রতিযোগীতা ও পৌষমেলা করার জন্য ইএসডিও ও তার নির্বাহী পরিচালক ড. মুহম্মদ শহীদ উজ জামানকে বিশেষ ধন্যবাদ জানান। একই সঙ্গে শিক্ষার্থীদের বিকাশে তা বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে বলেই প্রবল শীতের মধ্যেও আমরা ঘরে বসে না থেকে পৌষ মেলা ও পিঠা উৎসবের আয়োজন করছি। আলোচনায় বক্তারা বলেন, শিশুদের সামাজিক ও সংস্কৃতিক বিকাশে ইএসডিও যে কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে তার জন্য তারা অবশ্যই ধন্যবাদের প্রাপ্য। বক্তারা শিশুদের বিকাশের এমন কার্যক্রম আরো নেয়ার জন্য পিকেএসএফ ও ইএসডিও’কে আহŸান জানায়।