তারা জেগে জেগে ঘুমান বলেই সরকারের উন্নয়ন দেখেনা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী মাটিরাঙ্গা উন্নয়ন মেলার সমাপনীর দিন প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, একসময়ে পাহাড়ের মানুষ চাঁদাবাজদের জ্বালায় সমতল এলাকা থেকে পাহাড়ে ব্যবসা করতে আসতোনা বতমানে আওয়ামীলীগ সরকারে আন্তরিকতার কারনেও

পার্বত্য শান্তিচুক্তির মাধ্যমে শেখ হাসিনা পাহাড়ের ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতই বন্ধ করেননি,পাহাড়ের প্রতিটি জনপদের উন্নয়নও নিশ্চিত
করেছেন। দেশের প্রতিটি উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মাণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন- এমন মন্তব্য করে খাগড়া পার্বত্যজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী তিনি আরো বলেন, এ মসজিদ নির্মাণের মাধ্যমে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে বিএনপি-জামায়াতের বক্তব্য মিথ্যা প্রমাণিত হবে। শনিবার সন্ধ্যায় খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মেলা উদযাপন কমিটির আহবায়ক বিএম মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙ্গার সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোহাম্মদ আলী, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক ও মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মো. জাকির হোসেন। মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সুবাস চাকমা, মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান ভুইয়া ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রকৌশলী ও মেলা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব মো. আনোয়ারুল হক স্বাগত বক্তব্য দেন।

বিএনপি পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করেছিল মন্তব্য করে তিনি বলেন, পাহাড়ের শান্তি দেখে আজ তারা নির্বাক। সরকারের উন্নয়নের প্রসঙ্গ টেনে পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেন,তারা জেগে জেগে ঘুমান বলেই সরকারের উন্নয়ন দেখছে না। আর যারা দেখছে তারা লজ্জায় বলতে পারছেন না।

উন্নয়ন মেলা উপলক্ষ্যে আয়োজিত ক্যুইজ, রচনা, চিত্রাঙ্গন ও বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরন করেন পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। এরপরপরই মেলায় অংশগ্রহণকারী স্টলের মাঝে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করেন।
পুরুস্কার বিতরন শেষে উন্নয়ন মেলা মঞ্চে জনপ্রিয় শীল্পিরা সংগীত পরিবেশনা করেন।

প্রিন্স, ঢাকা