রিজিয়ন কমান্ডারে গাড়ি ভাঙচুর করেছে ইউপিডিএফ

খাগড়াছড়ি প্রতিিনধি: খাগড়াছড়িতে অবরোধে দায়িত্বরত পুলিশের সাথে সংঘর্ষ ও গাড়িতে অগ্নিসংযোগের মধ্য দিয়ে প্রথম দিনের অবরোধ শেষে দ্বিতীয় দিনের (রোববার) অবরোধকালে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি‘র গাড়ি ভাঙচুর করেছে অবরোধ সমর্থক ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইউপিডিএফ কর্মীরা। রোববার বেলা পৌনে দুইটার দিকে খাগড়াছড়ির আলুটিলা পুনর্বাসন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, ঘটনার সময় বিজিবির দক্ষিন-পুর্ব রিজিয়নের ভারপ্রাপ্ত রিজিয়ন কমান্ডার কর্ণেল আনিসুর রহমানকে বহনকারী পাজেরোসহ দুইটি পাজেরো ও দুইটি পিকআপ খাগড়াছড়ি থেকে চট্টগ্রামে ফেরার পথে খাগড়াছড়ির আলুটিলা পুনর্বাসন এলাকায় পুনর্বাসন যাত্রী ছাউনির পাশের পাহাড় থেকে ৫/৭জন যুবক অবরোধ সমর্থক বিজিবির গাড়ি লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ও গুলতি মারে।

এতে বিজিবির দক্ষিন-পুর্ব রিজিয়নের ভারপ্রাপ্ত রিজিয়ন কমান্ডার কর্ণেল আনিসুর রহমানকে বহনকারী পাজেরো গাড়ির ডান পাশের গ্লাস ভেঙ্গে যায়। এসময় অপর পাজেরোটির পেছনের অংশ সামান্য ক্ষতিগ্রস্থ হয়। তবে এসময় গাড়িতে থাকা কেউ আহত হয়নি বলে সুত্রটি জানিয়েছে।

এসময় বিজিবি ও স্থানীয়দের উপস্থিতি দেখে অবরোধ সমর্থক ইউপিডিএফ কর্মীরা পালিয়ে যায়।

প্রসঙ্গত গত ৩জানুয়ারী খাগড়াছড়ি শহরের সুইচগেইট এলাকায় পতিপক্ষের গুলিতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) কেন্দ্রীয় নেতা মিঠুন চাকমার হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও পিকেটারদের উপর হামলার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ’র

ডাকে দ্বিতীয় দিনের মত সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধে পুলিশ পিকেটার ধাওয়া, বিভিন্ন স্থানে টমটম ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের মধ্যদিয়ে দ্বিতীয়দিনের হরতাল পালিত হয়েছে। ইউপিডিএফ এ হত্যাকাণ্ডের জন্য ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিককে দায়ী করে আসছে। খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক আব্দুল হান্নান জানান, এখনো থানায় মামলা করেনি।

উল্লেখ, প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ ১৯ বছর পর গেল বছরের ১৫ নভেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি আঞ্চলিক সংগঠন
ইউপিডিএফ ভেঙ্গে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক নামে আরো একটি সংগঠনের আত্মপ্রকাশ ঘটে।