খালেদা জিয়া মাছ নয়, মাছের ঝোল খান: মতিয়া চৌধুরী

নিউজ ডেস্ক: কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মাছ নয়, মাছের ঝোল খান। তিনি ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা ও সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেন। কিন্তু সংসদ নির্বাচনে অংশ নেন না। তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ না নিলে ভুল করবেন।

শুক্রবার সকালে শেরপুরের নকলা উপজেলার উরফা ইউনিয়নের বারমাইস্যা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক অনুষ্ঠানে মতিয়া চৌধুরী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে তিনি মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে কম্বল ও অনুদান বিতরণ করেন।

আসন্ন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে মতিয়া চৌধুরী বলেন, নির্বাচনে সবাই অংশ নিলে আমরা খুশি হব। খালেদা জিয়া যদি মনে করেন তিনি না এলে নির্বাচন হবে না, তাহলে ভুল করছেন। তাকে মনে রাখতে হবে, সময় ও নদীর স্রোত কারও জন্য অপেক্ষা করে না। মওলানা ভাসানী ‘৭০-এর নির্বাচনে আসেননি। তাতে সে নির্বাচন অবৈধ হয়নি। বরং সেই পার্লামেন্টের রায়ে জাতিসংঘে বাংলাদেশ যে বিচ্ছিন্নতাবাদী নয়, সেটা প্রমাণিত হয়েছে। মন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন চ্যালেঞ্জ করে ঠেকাতে পারেনি। সে সরকার চার বছর পার করেছে।

এ সময় কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে জেলা প্রশাসক পুলিশ সুপার, নকলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থি ছিলেন।

শুক্রবার কৃষিমন্ত্রী নকলা উপজেলার উরফা, বানেশ্বরদী, গনপদ্দী, চন্দ্রকোনা, চর অষ্টাধর, পাঠাকাটা, টালকী, নালিতাবাড়ী উপজেলার মরিচপুরান, রূপ নারায়ণকুড়া, কাকরকান্দি ও রামচন্দ্রকুড়া ইউনিয়নের এসএসসি টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রথম ১০ জন করে শিক্ষার্থীকে ৫০০ করে টাকা এবং ওই ১১ ইউনিয়নের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের দ্বিতীয়, অষ্টম ও দশম শ্রেণির সেরা ১০ জন করে শিক্ষার্থীর মধ্যে কম্বল বিতরণ করেন।