সন্ত্রাস চাঁদাবাজ মুক্ত টার্মিনাল গঠনের আহ্বান

৩০ ডিসেম্বর ২০১৭ইং শনিবার বেলা ৩টায় বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন, রেজিঃ নং চট্ট্রঃ ২৩ (বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের অন্তর্ভূক্ত) এর সাধারণ সভা হোটেল ঝিনুক শ্বাশনগাছা, কুমিল্লায় সংগঠনের সভাপতি গাজী এম.এ মতিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

সাধারণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থি ছিলেন, বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ আখলাক হায়দার। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইনসুর আলী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মোঃ আমিরুল ইসলাম অমির, মোঃ রাকিব উদ্দিন রাকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামূল কবীর (মিরাজ)।

বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ট্রাক এন্ড ট্রাংকলরী চালক শ্রমিক ইউনিয়ন, রেজিঃ নং ১৯৫১ এর সভাপতি মোঃ ইদন মিয়া মন্টু, সি.এন.জি অটোরিকসা শ্রমিক ইউনিয়ন, রেজিঃ নং ২৫০৩ এর সভাপতি কাজী মাওলানা মোঃ ওমর ফারুক, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ, মনোহরগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মোস্তফা কামাল ফোরম্যান, সিএনজি অটোরিকসা শ্রমিক ইউনিয়ন, রেজিঃ নং ২২৯৮ সভাপতি মোঃ আবুল হাসেম প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ আখলাক হায়দার বলেন, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ মুক্ত টার্মিনাল গঠন করতে পরিবহন শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। বিভিন্ন টার্মিনালে অবৈধভাবে চাঁদা আদায়কারী সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করার জন্য সড়ক পরিবহন শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থীকে নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে মোঃ ইনসুর আলী বলেন, পরিবহন শ্রমিকদের দীর্ঘ ৪০ বছরে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতারা অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়েছেন। পরিবহন শ্রমিকদের স্বার্থে কোন কর্মসূচী গ্রহণ করেন নাই। তিনি মালিক কর্তৃক পরিবহন শ্রমিকদের নিয়োগপত্র প্রদান সহ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ ঘোষিত ১২ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

সাধারণ সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন পরিচালনা করার জন্য ০৩ (তিন) সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন উপ-কমিটি ঘোষনা করা হয়। এবং ফেডারেশনের বিগত দিনের আয়-ব্যয়ের হিসাব চাটার্ড একাউন্টেন্ডের মাধ্যমে অনুমোদন করে আনার জন্য নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে দায়িত্ব অর্পণ করা হয়।

প্রিন্স, ঢাকা