মহিউদ্দিন চৌধুরীর বাসায় প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: সদ্য প্রয়াত চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র আলহাজ্ব এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানাতে গতকাল রোববার বিকেল ৪টায় নগরীর চশমা হিলের বাসায় যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি মহিউদ্দিনের বাসায় ৩৫ মিনিট অবস্থান করে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন এবং চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে নিহতদের প্রত্যেক পরিবারের সদস্যদের হাতে ৫ লাখ টাকা তুলে দেন।

মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী নগর মহিলা লীগের সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন ছোট দুই সন্তানকে প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দিয়ে বলেন, আপনিই এদের অভিভাবক।

তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হ্যাঁ’ আমি তাদের অভিভাবক। এ সময় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য গৃহায়ন ও গণপূর্মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, ড. হাসান মাহমুদ, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরীসহ দলের নেতা ও চৌধুরীর পরিবারের আত্মীয়-স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে নগরীর দুই নম্বর গেট থেকেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরদারিও বেশ। তল্লাশি ছাড়া কাউকেই চশমাহিল-মুখো হতে দিচ্ছেন না তারা। গতকাল সকালে নৌবাহিনীর বার্ষিক রাষ্ট্রপতির কুচকাওয়াজে যোগ দিতে চট্টগ্রাম আসেন প্রধানমন্ত্রী। নৌবাহিনীর কর্মসূচি শেষে মহিউদ্দিনের বাসায় যান তিনি।

প্রিন্স, ঢাকা