দায় মহিউদ্দীন খান আলমগীরের

নিউজ ডেস্ক: বেসিক ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাচ্চু এবং তার পরিবারের সদস্যদের ব্যাংক লেনদেনের নথি তলব করেছে দুদক।

এর প্রেক্ষিতে বর্তমানে ফারমার্স ব্যাংক নিয়ে যে বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে সে ব্যাপারেও আমরা আশাবাদী হতে পারি। ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান মহিউদ্দীন খান আলমগীরের প্রশ্রয়ে এর অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান বাবুল চিশতী সেখানে শুরু করেছিলেন দুর্নীতির মহোৎসব।

উৎকোচের বিনিময়ে তিনি ঋণ পাইয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করেছেন বিভিন্ন গ্রাহকদের, এগুলো পরিণত হয়েছে ‘ব্যাড লোনে’। পরিচালনা পর্ষদের অন্যান্য সদস্যদের অনুমতি তো নেয়াই হয়নি, তাদেরকে ব্যাংকে ঢুকতে পর্যন্ত দেয়া হয়নি অনেক ক্ষেত্রে।

ফারমার্স ব্যাংকের অগণিত গ্রাহক অর্থাৎ দেশের জনগণের সাথে প্রতারণা, দেশের অর্থনীতিকে ক্ষতিগ্রস্ত করার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বাসের অমর্যাদা করার দায় মহিউদ্দীন খান আলমগীরকে নিতে হবে, বিচারের মাধ্যমে বাবুল চিশতীকে যথোপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে। এটা আমাদের দাবি। শেখ হাসিনা যতদিন প্রধানমন্ত্রী আছেন, ততদিন এসব দুর্নীতিবাজ কোনোভাবেই পার পাবে না, এ আস্থা আমাদের আছে।