চুক্তি অসম, চুক্তির পরও রোহিঙ্গারা আসছে: আমীর খসরু

নিউজ ডেস্ক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, প্রতিবেশী একটি দেশকে খুশি করতেই রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি করেছে সরকার। অসম এই চুক্তিতে যে শর্ত দেওয়া হয়েছে, তা মেনে চললে রোহিঙ্গারা কেউ নিজ দেশে ফেরত যেতে পারবে না।

রোববার দুপুরে রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সেমিনার কক্ষে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল ঢাকা জেলা শাখার কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের ঢাকা জেলার আহ্বায়ক সাবিনা ইয়াসমিন। বক্তব্য দেন জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস। উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, ঢাকা জেলা বিএনপি সভাপতি দেওয়ান মো. সালাউদ্দিন বাবু, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য অর্পণা রায় প্রমুখ।

এ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে ঢাকা জেলার নতুন নেতৃত্ব নির্বাচিত করার কথা।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, মিয়ানমারের সঙ্গে সরকারের যে চুক্তি হয়েছে সেখানে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্মমতা-নিপীড়ন-নির্যাতন-হত্যা-ধর্ষণ-অগ্নিসংযোগের কথা উল্লেখ নেই। এতেই বোঝা যায় যে এই চুক্তিতে সরকার শুধু দেশ বিক্রিই করছে না, দেশের আত্মা, মান-সম্মান বিক্রি করে দিচ্ছে।

তিনি বলেন, এই চুক্তির পরও মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আসছে। তাহলে বোঝা যায়, বাংলাদেশের মানুষকে ধোঁকা দিয়েছে সরকার। এটি এক ধরনের প্রতারণা ছাড়া কিছুই নয়। কূটনৈতিকভাবে সরকার ব্যর্থ হয়েছে।