জয় পেল রংপুর

বিপিএলের ২২ তম ম্যাচে সিলেটের বিপক্ষে জয় পেয়েছে রংপুর।

সোমবার সন্ধ্যায় মিরপুর শের-ই-বাংল জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ৭ রানে জিতেছে মাশরাফির দল।

এর আগে টস জিতে রংপুরকে ব্যাটে পাঠান সিলেট দলপতি নাসির হোসেন। ব্যাটিংয়ে নেমে রংপুরের ওপেনিং জুটি গেইল-ম্যাককালাম তুলে নেন ৮০ রান (৮.৪ ওভার)। ম্যাককালাম ২১ বলে তিনটি করে চার ও ছক্কায় করেন ৩৩ রান। ক্রিস গেইল আউট হওয়ার আগে করেন ৫০ রান। তার ৩৯ বলের ইনিংসে ছিল দুটি চার আর পাঁচটি ছক্কার মার। শাহরিয়ার নাফিস করেন ৮ রান।

তিন নম্বরে নামা মোহাম্মদ মিঠুন ২১ বলে করেন ২৫ রান। ১২ বলে ১৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন থিসারা পেরেরা। রবি বোপারা শেষ ওভারে রান আউট হওয়ার আগে করেন ১২ বলে ২৮ রান। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৬৯ রান করেন মাশরাফিবাহিনী।

সিলেটের দলপতি নাসির হোসেন ৪ ওভারে ২৭ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট। আবুল হাসান ৪ ওভারে ২৫ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। টিম ব্রেসনান ৪ ওভারে ৪৯ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট।

১৭০ রান তাড়ায় শুরুটা ভালো হয়নি সিলেটের। টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান ফিরেন দ্রুত। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে দানুশকা গুনাথিলকাকে ফিরিয়ে দেন সোহাগ গাজী। বিপিএলে নিজের প্রথম ম্যাচে সুবিধা করতে পারেননি বাবর আজম। মাশরাফিকে উড়ানোর চেষ্টায় ফিরেন রবি বোপারাকে ক্যাচ দিয়ে।

রুবেলের অফ স্টাম্পের বাইরের বল তাড়া করতে গিয়ে মোহাম্মদ মিঠুনকে ক্যাচ দেন আন্দ্রে ফ্লেচার। চার ওভার শেষে ২৫ রানে নেই ৩ উইকেট।

নাসির হোসেনের সঙ্গে সাব্বিরের ১১৭ রানের জুটিতে লড়াইয়ে ফেরে সিলেট। দুই জনের জুটিতে অগ্রণী ছিলেন আগের ম্যাচে ছন্দে ফেরা সাব্বির। তার দারুণ সব শটে বানের স্রোতের মতো আসছিল রান।

শেষ ৪ ওভারে সিলেটের প্রয়োজন ছিল ৩৫ রান। মাশরাফি দারুণ এক ওভারে মাত্র দুই রান দিয়ে সমীকরণটা কঠিন করে ফেলেন সাব্বির-নাসিরের জন্য। বাউন্ডারির জন্য মরিয়া সাব্বিরকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন থিসারা পেরেরা। ৪৯ বলে খেলা সাব্বিরের ৭০ রানের ইনিংসটি গড়া ৭টি চার ও দুটি ছক্কায়। নাসির আর টিম ব্রেসনান সেখান থেকে মেলাতে পারেননি জয়ের সমীকরণ। শেষ চার ওভারে মাত্র একটি বাউন্ডারি হাঁকাতে পেরেছে সিলেট। সেটিও ফল অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যাওয়ার পর। জয়ের জন্য শেষ বলে প্রয়োজন ছিল ১৪ রান। সে সময়ে ছক্কা হাঁকান টিম ব্রেননান।

৫০ রানে অপরাজিত থাকেন অধিনায়ক নাসির। তার ৪৩ বলের ইনিংসে মাত্র দুটি বাউন্ডারি। একটি করে চার-ছক্কা।

১৮ রান দিয়ে এক উইকেট নেন মাশরাফি। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট নেওয়া সোহাগ আর বোলিং পাননি। রুবেল ৩০ রানে নেন এক উইকেট।

ম্যাচসেরা হন ক্রিস গেইল।