জলাবদ্ধতা নিরসন করে সুপেয় পানি নিশ্চিত করা হবে :সাঈদ খোকন

নিউজ ডেস্ক: ঢাকা দক্ষিণের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, সব ধরনের ভুল বোঝাবুঝি পেছনে ফেলে জলাবদ্ধতার মতো নাগরিক ভোগান্তি দূর করে সুপেয় পানি সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে। ঢাকা ওয়াসাকে সাথে নিয়ে জরুরীভিত্তিতে আশু ও দীর্ঘমেয়াদী সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন মেয়র।

নগর ভবন মিলনায়তনে কর্পোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের নিয়ে অনুষ্ঠিত কর্পোরেশন সভায় মেয়র সাঈদ খোকন এসব কথা বলেন। এসময় কর্পোরেশন সভায় অংশগ্রহণকারী ঢাকা ওয়াসার এমডি তাকসিম এ খান ওয়াসার নানা তত্পরতার কথা তুলে ধরে আগামী বছর থেকে জলজট অনেক কমে যাবে বলে তার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে এসে নগরীর পানি সরবরাহ ও সংকট নিয়ে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের তোপের মুখে পড়েন ঢাকা ওয়াসার এমডি। তিনি এই সময় প্রশ্নে প্রশ্নে জর্জরিত হন।

মেয়র সাঈদ খোকন নগরবাসীর ধুলী দূষণ থেকে রক্ষাকল্পে কর্পোরেশনের ১৪টি গাড়ীর মাধ্যমে নগরীর প্রাইমারি স্কুলের সব সড়কে পানি ছিটানোর কথা বলেন।

তিনি বলেন, পুরো শুষ্ক মৌসুমজুড়ে দিনে ২ বেলা করে কমবেশি নগরীর ৫০ কিলোমিটার প্রাইমারি স্কুলের সামনের সড়কের ধুলা পানি দিয়ে ধৌতকরণ কাজ চলবে। গত বৃহস্পতিবার ৯টি গাড়ি দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়। আরো ৫টি গাড়ি এর সাথে সম্পৃক্ত হবে। এসময় কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল ছাড়াও বিভিন্ন দপ্তরের বিভাগীয় প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

কর্পোরেশন সভায় ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণ ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলরগণ মেয়রের কাছে নিজ নিজ এলাকায় ওয়াসার সুপেয় পানি না পাওয়া, পানি পেলেও তীব্র দুর্গন্ধের কারণে তা ব্যবহার করতে না পারা, স্যুয়ারেজ লাইনের সাথে পানির লাইন মিশে যাওয়া, ওয়াসা অফিসে চিঠি পাঠিয়ে তাগিদ দিয়েও কোনো প্রতিকার না পাওয়া ইত্যাদি সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

সভায় ৫০ জন পুরুষ কাউন্সিলর ও ১৪ জন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর এসব সমস্যা তুলে ধরে বক্তৃতা করেন।

ওয়াসা নিয়ে এসব অভিযোগ শোনার পর মেয়র সাঈদ খোকন ঢাকা ওয়াসাকে সাথে নিয়ে জরুরীভিত্তিতে আশু ও দীর্ঘমেয়াদী সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করে নাগরিক ভোগান্তি লাঘব করা হবে বলে কাউন্সিলরদের আশ্বস্ত করেন।