চুরির অভিযোগে খুঁটিতে ও গাছে বেঁধে পিটিয়ে হত্যাকারীদের ফাসীর দাবীতে মানব বন্ধন

গৌরীপুর সংবাদদাতা: ময়মনসিংহের গৌরীপুরে চুরির অপবাদে গাছে ও খুটিতে বেঁধে কিশোর সাগরকে (১৭) পিটিয়ে হত্যাকান্ডের ঘটনায় আসামীদের ফাঁসি ও পলাতক আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বুধবার(১নভেম্বর) গৌরীপুর শহরের কৃষ্ণচ’ড়া চত্বরে মানববন্ধন করেছে উপজেলা মানবাধিকার কমিশন ও স্বজন সমাবেশ।

গত ২৫শে সেপ্টেম্বর উপজেলার চরশ্রীমরামপুর গ্রামের গাউছিয়া মৎস্য প্রজনন কেন্দ্রে পানির পাম্প চুরির চেষ্টার অভিযোগে গাছে ও খুটিঁতে বেঁধে কিশোর সাগরকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় সাগরের বাবা মোঃ শিপন মিয়া বাদী হয়ে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামী করা হয় আক্কাস আলী, তার ভাই হাসু মিয়া, জুয়েল মিয়া, আঃ ছাত্তার, সোহেল মিয়া ও হ্যাচারীর কর্মচারি আব্দুল কাইয়ুম সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে। পুলিশ ও র‌্যাব অভিযান চালিয়ে ইতিমধ্যে হত্যাকান্ডের মূল হোতা আক্কাস আলী ও তার সহযোগী কাইয়ুম, রিয়াজ উদ্দিন ও ফজলুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে।

গতকাল বুধবার পর্যন্ত মামলার পলাতক আসামীরা হলেন হাসু মিয়া, জুয়েল মিয়া, আঃ ছাত্তার, সোহেল মিয়া।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার কমিশন উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ রইছ উদ্দিন, উপজেলা স্বজন সমাবেশের সভাপতি উপাধ্যক্ষ এমদাদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুজ্জামান আরিফ, পৌর স্বজন সমাবেশের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন শরীফ প্রমুখ।

ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অফিসার ইনচার্জ আশিকুর রহমান বলেন, কিশোর সাগর হত্যাকান্ড মামলার তদন্ত শেষ পর্যায়ে রয়েছে। গ্রেফতারকৃত চারজন আসামী হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার বিষয়ে আদালেত স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই মামলার চার্জশীট দেওয়া হবে। পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।