কুলাউড়ায় ঘাতক স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন : ঘাতক স্বামী রফিক গ্রেফতার

 

এম শাহবান রশীদ চৌধুরী মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) বিনয় ভূষণ রায় এর এক দুঃসাহষিক অভিযানে স্ত্রীকে হত্যার ৬ ঘন্টার মধ্যে একটি বিলে আত্মগোপন করে থাকা ঘাতক পাষন্ড স্বামী রফিককে ছোরাসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আবু ইউছুফ জানান, উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামের তাহির মিয়ার মেয়ে ৪ সন্তানের জননী নাসিমা বেগম (৩০) নিজ বাপের বাড়িতে থাকাবস্থায় সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘাতক স্বামী একই ইউনিয়নের লোহাতুলি গ্রামের তাজুল মিয়ার ছেলে রফিক মিয়া শ্বশুড় বাড়িতে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করে।

এসময় তাকে বাধা দিতে গেলে ঘাতক স্বামী শ্বাশুড়ি ও শালিকা মলি বেগমকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীরা আহতদের উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে গুরুতর আহতবস্থায় তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

খবর পেয়ে কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আবু ইউছুফ ও কুলাউড়া থানার ওসি মোঃ শামীম মুসার সহযোগিতায় ওসি (তদন্ত) বিনয় ভূষণ রায় পাষন্ড ঘাতককে গ্রেফতারে রাতেই অভিযান শুরু করে ও এক পর্যায়ে রাত ২টায় ওসি (তদন্ত) বিনয় ভূষণ রায় নৌকা নিয়ে ব্রাহ্মণবাজারের পাশের এক বিল থেকে ঘাতক রফিক মিয়াকে ছোরাসহ আটক করেন।

পরকিয়ার সন্দেহে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশের ধারনা।