শিশু উর্মি হত্যার বিচার দাবিতে প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মধ্য বড়মাছুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর উর্মি আকক্তারকে ধর্ষণ শেষে হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢাকাস্থ মঠবাড়িয়াবাসিদের উদ্যোগে সোমবার সকালে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে ঢাকায় বসবাসরত মঠবাড়িয়াবাসি ও নিহত শিশু উর্মির পরিবারের সদস্যরা অংশ নেন।

মানববন্ধন শেষে সমাবেশে প্রতিবাদ সমাবেশে মঠবাড়িয়া উপজেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুল হক খান মজনুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক খান, বরগুনা-২ আসনের সাবেক সাংসদ মো. হুমায়ূন কবির হিরু, সাংবাদিক আজমল হক হেলাল, আ‘লীগ নেতা ওবায়দুল হক খান, প্রকৌশলী বেলায়েত হোসেন, মঠবাড়িয়া উপজেলা আ‘লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আজিজুর হক সেলিম মাতুব্বর, মঠবাড়িয়া উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মজিবর রহমান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক তাজউদ্দিন আহম্মেদ, মঠবাড়িয়া যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুলহাস শাহিন, সাংবাদিক জামাল এইচ আকন, মোস্তফা কামাল বুলেট ও নিহত ঊর্মির বাবা জুলফিকার আমীন সোহেল।

সনমাবেশে বক্তারা শিশু উর্মি হত্যাকারীকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করে স্বরাষ্ট্র মন্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

উল্লেখ্য, মঠবাড়িয়ার সাংবাদিক জুলফিকার আমিন সোহেলের ছোট মেয়ে চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী উর্মি আক্তার নিখোঁজের তিনদিন পর গত ২৩ জুলাই সকালে বাড়ির অদুরে ডোবা থেকে গলায় ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের শিশুটির বাবা জুলফিকার আমিন ওইদিন রাতে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ এঘটনায় জিজ্ঞাসা বাদের জন্য উত্তর বড়মাছুয়া গ্রামের কুদ্দস আকনের ছেলে ছগির আকন (৩৫)কে আটক করে আদালতে সোপর্দ দুইদফা রিমান্ডে নেয়। তবে হত্যার রহস্য পুলিশ এখনও উদঘাটন ও প্রকৃত হত্যাকারিদের সনাক্ত করতে পারেনি। এ ঘটনার মঠবাড়িয়ায় একাধীকবার মানববন্ধন পালিত হয়েছে।