ইউক্রেনকে প্রতিরক্ষা অস্ত্র না দিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি পুতিন

Russian President Vladimir Putin speaks during his annual end-of-year news conference in Moscow, Russia, December 23, 2016. REUTERS/Sergei Karpukhin - RTX2W9QM

নিউজ ডেস্ক:  ইউক্রেনকে প্রতিরক্ষা অস্ত্রশস্ত্র সরবরাহ না করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি বলেছেন, ইউক্রেনকে প্রতিরক্ষামূলক অস্ত্র সরবরাহের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের যে কোনও সিদ্ধান্ত পূর্ব ইউক্রেনে সংঘাতের জ্বালানি তৈরি করবে। এতে করে সেখানকার রুশপন্থী যোদ্ধারা তাদের কার্যক্রম আরও বিস্তৃত করার উৎসাহ পাবে।

চীনের শিয়ামেনে মঙ্গলবার ব্রিকস শীর্ষ সম্মেলন শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে পুতিন বলেন, সংঘাতপূর্ণ অঞ্চলে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সরবরাহ শান্তি প্রতিষ্ঠার প্রক্রিয়াকে সাহায্য করবে না। এটা পরিস্থিতিকে আরও আরও খারাপের দিকে নিয়ে যাবে। এতে করে শুধু হতাহতের সংখ্যাই বাড়বে। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের আগস্টে ইউক্রেন সফর করেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস। সেই সময় তিনি বলেছিলেন, ইউক্রেনের আত্মরক্ষার জন্য দেশটিকে প্রাণঘাতী অস্ত্র সরবরাহের বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্রের বিবেচনাধীন রয়েছে।

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে গত তিন বছরে দেশটির সরকারি বাহিনী এবং রুশপন্থী বিদ্রোহীদের মধ্যকার সংঘাতে ১০ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। ইউক্রেনের দাবি, ওই অঞ্চলে রাশিয়ার সেনাবাহিনী তৎপর রয়েছে এবং মস্কো সেখানে ভারী অস্ত্রও সরবরাহ করে। তবে এসব দাবি নাকচ করে দিয়েছে রুশ কর্তৃপক্ষ। অপরদিকে ইউক্রেন সংকটের জন্য বরাবরই যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোকে দায়ী করে আসছে রাশিয়া। মস্কোর অভিযোগ, পশ্চিমা দেশগুলো ন্যাটো সম্প্রসারণ না করার অঙ্গীকার ভঙ্গ করেছে। ন্যাটো বিভিন্ন দেশকে তাদের অথবা রাশিয়ার মধ্যে যে কোনো একটি বিকল্প নিতে চাপ দিচ্ছে। রয়টার্স।