বাংলাদেশে ঢুকেছে ১৮ হাজার রোহিঙ্গা

নিউজ ডেস্ক: গত সপ্তাহে বাংলাদেশে প্রায় ১৮ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম ঢুকে পড়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম)। মিয়ানমারের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে গত পাঁচ বছরের মধ্যে এবারের ভয়াবহ সহিংসতা থেকে পালানোর চেষ্টা করছে রোহিঙ্গারা।

আইওএম’র এশীয় অঞ্চলের মুখপাত্র ক্রিস লম বার্তাসংস্থা বলেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে গতকাল রাত পর্যন্ত বাংলাদেশে ১৮ হাজার ৫০০ রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে।

ক্রিস লম বলেন, রোহিঙ্গাদের সঠিক পরিসংখ্যান পাওয়া কঠিন। কারণ অনেকেই বাংলাদেশে প্রবেশের পর স্থানীয় কর্তৃপক্ষের কাছে নিবন্ধন করছে না।

বাংলাদেশে প্রায় ৪ লাখ রোহিঙ্গা বসবাস করছে। গত বছরের অক্টোবরে রাখাইনে রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযান শুরুর পর থেকে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ বেড়েছে। তবে রাখাইনের সাম্প্রতিক সহিংসতার পর বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের প্রবেশে বাধা দিচ্ছে। সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টাকারী অনেক রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

লম বলেন, ‘আমরা জানি সীমান্তে মানুষ আটকা আছে। তবে ঠিক কতসংখ্যক মানুষ আটক তার সঠিক চিত্র আমাদের জানা নেই।’

গত বছরের অক্টোবরে রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর চেকপোস্টে বিদ্রোহীদের সিরিজ হামলার পর থেকে মিয়ানমারের উত্তরের এই এলাকায় রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনী। রোহিঙ্গা নিধনের এই অভিযানে ৮৭ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়েছে।

রোহিঙ্গারা বলছেন, রাখাইনে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী খুন, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ ভয়াবহ নিপীড়ন চালাচ্ছে রোহিঙ্গাদের ওপর। নারী, শিশুরাও বাদ যাচ্ছে না সেনাবাহিনীর নিপীড়ন থেকে।

জাতিসংঘ বলছে, মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান মানবতাবিরোধী অপরাধের শামিল। রোহিঙ্গাদেরকে জাতিগত নিধনের চেষ্টা করছে দেশটির সরকার।