এবারের রেলযাত্রা শঙ্কার বাইরে নয়

নিউজ ডেস্ক: বন্যা আর অতিবৃষ্টির প্রভাবে শঙ্কার বাইরে নয় এবারের রেলযাত্রাও। সাত জেলায় রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি ব্রিজ ধসের মত ঘটনায় উদ্বিগ্ন যাত্রীরা। তবে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের দাবি দুর্যোগ কাটিয়ে শেষ মুহূর্তে নিজেদের গুছিয়ে এনেছেন তারা। সিডিউল ঠিকরেখে নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিতে রেল প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন মহাপরিচালক। এদিকে প্রতিকূল পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে আগাম প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী।

প্রতিবছরই ঈদে নগরবাসীর ঘর ফেরার হিড়িক পড়ে। আর এতে তাদের পছন্দের তালিকায় সবার আগে থাকে রেল। এবার সড়কের বেহাল দশায় রেলের ওপর যে আরো বেশি চাপ পড়বে তার প্রমাণ মিলেছে আগাম টিকিট বিক্রির লাইন দেখেই।

তবে বন্যা এবার আঘাত হেনেছে রেলেও। রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, নীলফামারী, ঠাকুরগাঁও এবং পঞ্চগড়, বন্যায় এ সাতটি জেলার রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা নাজুক হয়ে পড়ে। এছাড়া টাঙ্গাইলে ভেঙে পড়ে একটি রেল ব্রিজ। সবশেষ অতি বৃষ্টিতে ঢাকার সেনানিবাস এলাকায় রেল লাইনের একাংশ দেবে যায়। এনিয়ে কিছুটা শঙ্কায় বাড়িফেরা মানুষ। এ সব দুর্যোগ কাটিয়ে আবারো শতভাগ সেবা দিতে প্রস্তুত রেলওয়ে।

এদিকে যে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় তরিৎ ব্যবস্থা নিতে রেল কর্তৃপক্ষ সজাগ বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী। এবারের ঈদে প্রতিদিন গড়ে দুই লাখ ৭০ হাজার যাত্রী রেলে করে বাড়ি ফিরবে।