যুক্তরাষ্ট্র থেকে কিউবার কূটনীতিক বহিষ্কার

নিউজ ডেস্ক: পাঁচ দশকের বেশি সময় ধরে কিউবার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের যে বৈরি সম্পর্ক ছিল তা ২০১৫ সালে এসে কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছিল। দু’পক্ষের মধ্যে শীতল যুদ্ধের অবসান ঘটেছিল। কিন্তু সেই সম্পর্কে আবারও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। সম্প্রতি ওয়াশিংটন থেকে কিউবার দুই কূটনীতিককে বহিষ্কারকে কেন্দ্র করে দু’দেশের মধ্যে আবারও অস্থিরতা তৈরি হতে পারে।

হাভানাতে থাকা কয়েকজন মার্কিন দূতাবাস কর্মকর্তার শারীরিক সমস্যাকে কেন্দ্র করেই কিউবার কূটনীতিকদের বহিষ্কার করা হয়েছে। মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র হিদার নুরেট বলছেন, গত বছরের শেষ দিকে কিউবায় থাকা বেশ কয়েকজন মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তা কানে কম শুনতে থাকেন।

তাদেরকে তখন জোর করেই দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের ধারণা, কিউবার গোয়েন্দা সংস্থা হয়তো এমন কোনো যন্ত্র সেইসব কর্মকর্তার বাসায় বা কর্মস্থলের কাছাকাছি ব্যবহার করেছিল যার কারণে তাদের এমন শ্রবণ সমস্যা দেখা দিতে পারে।

সন্দেহ করা হচ্ছে, সেসব যন্ত্রের সাহায্যে উচ্চ কম্পাঙ্কের শব্দ তরঙ্গ প্রবাহ হয়ে এমন শারীরিক সমস্যা সৃষ্টি করেছে।
যদিও সেসব সমস্যা প্রাণঘাতী নয় তবুও মার্কিন কূটনীতিকদের দেশে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এই বিষয়টিকেই যুক্তরাষ্ট্র অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছে। এখন পর্যন্ত দুই কূটনীতিকের বহিষ্কারের বিষয়ে কিউবার তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।