সার্বভৌম সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা কারো নেই :নাসিম

নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত সংসদ সার্বভৌম। জনগণ ছাড়া সার্বভৌম সংসদে হাত দেওয়ার ক্ষমতা আর কারো নেই। বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বর সড়কের বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ নির্বাচনে জনগণ যে রায় দেবে তা আমরা মেনে নেব। সংবিধানের বাইরে সরকার এক বিন্দু যাবে না। আর ষড়যন্ত্র করে আওয়ামী লীগের ক্ষতি করা যাবে না।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছারের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মো. হারুনুর রশিদ, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য এস এম কামাল হোসেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি নির্মলরঞ্জন গুহ, ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোবাশ্বের চৌধুরী, দক্ষিণের সভাপতি দেবাশীষ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান টিটো ও উত্তরের সাধারণ সম্পাদক ফরিদুর রহমান খান ইরান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার জানান, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মাদ নাসিম বলেছেন, সংসদীয় গণতন্ত্রে আদালতের হাত যত লম্বাই হোক, পার্লামেন্ট ছোঁয়ার অধিকার তাদের নাই। তিনি বলেন, বাংলাদেশের পার্লামেন্ট সার্বভৌম পার্লামেন্ট। পার্লামেন্ট প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, সুপ্রিম কোর্ট এবং বিচারপতি বানিয়েছে। পার্লামেন্টে হাত দেওয়ার ক্ষমতা বাংলার জনগণ ছাড়া কারও নাই। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে সার্বভৌম সংসদেক্জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাধীনতা চিকিত্সক পরিষদ (স্বাচিপ) এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাচিপ সভাপতি ডা. এম ইকবাল আর্সালান, মহাসচিব ডা. এমএ আজিজ প্রমুখ।

জঙ্গি ও একাত্তরের ঘাতকমুক্ত বাংলাদেশ চাইলে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে আবারও ভোট দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জনগণ যদি আগামীতে ভুল করে তাহলে এই দেশ জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও ৭১ এর ঘাতকদের হাতে চলে যাবে। দেশ অন্ধকারের পথে চলে যাবে। তাই জনগণকে ভুল করা যাবে না।’ গতকাল বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।