কাজী হায়াতের বক্তব্যের নিন্দা পরিচালক সমিতির

নিউজ ডেস্ক: গত বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) পরিচালক সমিতিতে লিখিতভাবে সদস্যপদ প্রত্যাহারের চিঠি দেন চিত্রপরিচালক কাজী হায়াৎ। চিঠিতে আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নির্মাতা কাজী হায়াৎ উল্লেখ করেছিলেন, দীর্ঘদিন ছবি নির্মাণ করছেন না তিনি। নতুন করে ছবি নির্মাণের ইচ্ছাও ছিল না। প্রিয় একজন প্রযোজকের চাপে তিনি একটি নতুন ছবি বানাতে চাইছিলেন।

পরিচালক সমিতির নিয়ম অনুযায়ী নতুন ছবির নাম নিবন্ধনের জন্য আবেদনও করেছিলেন। কিন্তু সমিতি তার ছবির নাম নিবন্ধনের ব্যাপারে টালবাহানা করেছে। এ বিষয়টি তাকে লজ্জিত ও ব্যথিত করেছে। বাধ্য হয়ে তিনি এ সমিতি থেকে সরে দাঁড়ালেন।

কাজী হায়াতের লিখিত প্রত্যাহারপত্রে তার বক্তব্যকে ভিত্তিহীন ও নিন্দা জানিয়ে পরিচালন সমিতি আজ, রোববার (সন্ধ্যায়) সমিতির মহাসচিব স্বাক্ষরিত একটি লিখিত বিবৃতি পাঠিয়েছে সংবাদমাধ্যমে।

চিত্রপরিচালক সমিতি সেই বিবৃতিতে বলেছে, বিভিন্ন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে পরিচালক সমিতি জানতে পেরেছে যে, চিত্রপরিচালক কাজী হায়াৎ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি বরাবর একটি ছবির নাম অন্তর্ভুক্তি সত্ত্বেও তাকে তা দেয়া হয়নি। এই মনোকষ্টে সমিতির সদস্যপদ প্রত্যাহার করেছেন। সংবাদটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, গত কয়েক মাসের মধ্যে তিনি (কাজী হায়াৎ) সমিতি বরাবর কোনো নতুন চলচ্চিত্রের নাম অন্তর্ভুক্ত করেননি।

পরিচালক সমিতি বলছে, কাজী হায়াৎ পদত্যাগপত্র বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ করলেও তিনি কোনো ছবির নাম উল্লেখকারী আবেদন বা ফটোকপি প্রকাশ করেননি। এতেই প্রমাণ হয় যে তিনি কোনো ছবির নাম অন্তর্ভুক্তির আবেদন করেননি।

মোটাদাগে উল্লেখ করে পরিচালক সমিতি বিবৃতি দিয়েছে, কাজী হায়াৎ পরিচালক সমিতির সাধারণ সদস্য নয়, তাকে ‘আজীবন সদস্য’ প্রদান করা হয়েছে। এর সব সুযোগ তিনি ভোগ করছেন। কাজী হায়াতের এসব কর্মকাণ্ডে সব পরিচালকের সম্মানরক্ষার্থে অসত্য ভিত্তিহীন বক্তব্য সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করায় পরিচালক সমিতি তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছে।

পরিচালক সমিতির এই বিবৃতির পর কাজী হায়াতের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।