খেলাপি ঋণের ৫২ শতাংশই ৫ ব্যাংকে

নিউজ ডেস্ক : অনিয়ম দুর্নীতি কার‌নে ব্যাং‌কিং খাতে ধারাবা‌হিকভাবে বাড়‌ছে খেলাপি ঋণের প‌রিমাণ। মাত্র কয়েকটি ব্যাংকের কাছে কেন্দ্রীভূত হয়ে আছে এসব খেলাপি ঋণ। মোট খেলাপি ঋণের প্রায় ৫২ শতাংশ দেশের ৫ ব্যাংকের কাছে।

সোমবার ফাইন্যান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি প্রতিবেদনে এই তথ্য প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশে ৫৭ ব্যাংকের মধ্যে পাঁচ ব্যাংকের কাছেই রয়েছে মোট খেলাপি ঋণের ৫১ দশমিক ৮ শতাংশ। আর বাকি ব্যাংকগুলোর কাছে রয়েছে ৪৮ দশমিক ২ শতাংশ খেলাপি ঋণ।

অন্যদিকে শীর্ষ ১০ ব্যাংকের খেলাপি ঋণ পরিমাণ দাঁড়ি‌য়ে‌ছে মোট খেলাপি ঋণের ৬৫ শতাংশ ৯ শতাংশ । বাকি ৪৭ ব্যাংকে খেলাপি রয়েছে মাত্র ৩৪ দশ‌মিক ১ শতাংশ।

প্রতিবেদনে ব্যাংকগুলোর নাম দেওয়া হয়নি। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ তালিকায় থাকা ব্যাংকগুলো হলো- রাষ্ট্রীয় মালিকানার সোনালী, বেসিক, জনতা, অগ্রণী অন্যতম রয়েছে।

প্রতিবেদন প্রকাশকালে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির ব‌লেন, এখন ব্যাং‌কিং খা‌তের বড় অং‌কের ঋণগু‌লো বে‌শি ঝু‌কি‌তে র‌য়ে‌ছে। বড় খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনা দেন তিনি।

সরকার ঘো‌ষিত উচ্চ প্রবৃ‌দ্ধির ধারা অব্যাহত রাখ‌তে ব্যাংক ও আ‌র্থিক প্র‌তিষ্ঠা‌নের শৃঙ্খলা ও সুশাসন বঝায় রাখ‌তে হ‌বে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের মোট খেলাপি ঋণের হার ও পরিমাণ বেড়েছে।

২০১৫ সালে ৮ দশমিক ৮ শতাংশ ছিল। ২০১৬ সালে ৯ দশমিক ২ শতাংশে দা‌ড়ি‌য়ে‌ছে। ২০১৬ সাল শে‌ষে মোট খেলা‌পি দা‌ড়ি‌য়ে‌ছে ৬২ হাজার ১৭০ কো‌টি টাকা।

খাত ভিত্তিক হি‌সে‌বে বা‌ণি‌জ্যিক ব্যাং‌কে খেলা‌পির হার সব‌ চে‌য়ে বে‌শি। যা মোট খেলা‌পির ২৩ দশ‌মিক ৪ শতাংশ। এছাড়াও তৈ‌রি পোশাক খা‌তে ১২ দশ‌মিক ৬ শতাংশ, বস্ত্র খা‌তে ৮ দশ‌মিক ৪ শতাংশ ও বড় শি‌ল্পে মোট খেলা‌পির ৯ দশ‌মিক ৮ শতাংশ র‌য়ে‌ছে।