যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে এমপির মামলা

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় যুবলীগের নেতা বশির হোসেনের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ডাঃ রুস্তম আলী ফরাজী মামলা করেছেন। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে মানহানিকর মন্তব্য করার অভিযোগে এই মামলাটি করা হয়।

বৃহস্পতিবার(২৭ জুলাই) রাতে স্থানীয় থানায় মামলাটি করেন এমপির অনুসারী উপজেলার বাদুড়তলী গ্রামের শাহাদাৎ হোসেন। বশির হোসেন বেতমোর রাজপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

মামলার সূএে জানা যায়, পিরোজপুর-৩ মঠবাড়িয়া আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ রুস্তম আলী ফরাজীর বিরুদ্ধে(২৫ জুলাই) বশির হোসেন তাঁর ব্যবহৃত নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে আপওিকর মন্তব্য করেন। এতে সাংসদ রুস্তম আলী ফরাজীর মানহানি হয়।

যুবলীগের নেতা বশির হোসেন বলেন, সম্প্রতি সাংবাদিক আজমল হক ও যুবলীগের নেতা নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে সাংসদের এক অনুসারী তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে মামলা করেন। ওই মামলায় আমি ব্যথিত হয়ে সাংসদ রুস্তম আলী ফরাজীকে নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্য করেছি। তবে মন্তব্য সাংসদের জন্য মানহানিকর হবে, এটা ভেবে করিনি।

মঠবাড়িয়া সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কাজী শাহনেওয়াজ বলেন, সাংসদ রুস্তম আলী ফরাজীর বিরুদ্ধে ফেসবুকে মানহানিকর স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে বশির হোসেনের নামে মামলা হয়েছে।

এর আগে( ৬ জুলাই) সাংসদ ডাঃ রুস্তম আলী ফরাজীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি করায় দৈনিক সকালের খবর পত্রিকার সাংবাদিক আজমল হক ও উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়ন যুবলীগের নেতা নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে মামলা করা হয়। এ ছাড়া (২৪ জুলাই) সাংসদকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে সাপলেজা ইউনিয়নের ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের ১০ নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় তার অনুসারী মাসুম বিল্লা মামলা করলে উপজেলা ছাএলীগ,যুবলীগ ও সেচ্ছাসেবকলীগ (২৫ জুলাই) মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মিছিল ও প্র তিবাদ সভা করেন।