মঠবাড়িয়ায় সংসদ সদস্য হত্যা চেষ্টায় ১০ জনের নামে মামলা

 ডাঃ রুস্তুম আলী ফরাজীকে মামলায় থানায় । পিরোজপুর প্রতিনিধি। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ডাঃ মোঃ রুস্তুম আলী ফরাজীর ওপরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে সাংসদের অনুসারী জয়নাল সরদার (৬০) এবং ইসমাইল হোসেন (৪৮) আহত হয়েছেন।ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (২৪ জুলাই) দুপুরে উপজেলার সাপলেজা মডেল হাইস্কুল মিলনায়তনে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা মৎস্য বিভাগের জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে মৎস্য সংরক্ষণ আইন ও মৎস্য চাষে জনসাধারণকে উদ্ধুদ্ধকরণ সভা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশেদ মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্টিত ওই সভায় সংসদ সদস্য ডা. রুস্তুম আলী ফরাজী প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেয়ার সময় সাপলেজা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মিরাজ মিয়ার নেতৃত্বে ২০ / ৩০ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সভা পণ্ড করে এমপিকে হত্যার চেষ্টা করেন।

সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ডাঃ মোঃ রুস্তুম আলী ফরাজী বলেন, পরিকল্পিতভাবে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলা চালানো হয়। সরকারি কর্মসূচী পন্ড ও আমার জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে ইউ,পি চেয়ারম্যান মিরাজের নির্দেশে সম্পূর্ণ বিনা উস্কানিতে এ হামলার ঘটোনা ঘটানো হয়।

ইউ,পি চেয়ারম্যান মিরাজুল ইসলাম মিরাজ এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এম,পি সাহেব ছাএলীগ,যুবলীগের বিরুদ্ধে বিষোদাগার করে বক্তব্য দেয়ায় তারা প্রতিবাদ করে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পুলিশ পরিস্হিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাজাহারুল আমিন জানান, এমপির মুঠোফোনে অবহিত হয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

এ ঘটনায় এমপির অনুসারী মাসুম মিয়া বাদী হয়ে এমপি ডা. রুস্তুম আলী ফরাজীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে সাপলেজা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতিসহ ১০ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে ইউনিয়ন ছাএলীগ ও যুবলীগে নেতা কর্মীর দের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে (২৫ জুলাই) মংগলবার বিকালে উপজেলা ছাএলীগ- যুবলীগ প্রতিবাদ সভা ডেকেছে।