চীনের সঙ্গে কূটনৈতিক আলোচনা চায় ভারত

নিউজ ডেস্ক: ডোকলাম সীমান্ত নিয়ে ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে ভারত-চীন সম্পর্ক। মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়িয়ে আছে দু’দেশের সেনাবাহিনী। এমন অবস্থায় অনেকেই সংঘাতের আশঙ্কা করলেও তা নাকচ করে কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছে ভারত।

এ ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গোপাল বাগলে জানান, আমাদের কূটনৈতিক মাধ্যম খোলা রয়েছে। দু’দেশেই একে অপরের দূতাবাস রয়েছে। ওই মাধ্যমগুলোকে ব্যবহার করা হচ্ছে। বাগলে মনে করিয়ে দেন, সীমান্ত সমস্যার সমাধানের জন্য ভারত ও চীনের সংগঠিত ও পারস্পরিক সম্মত পন্থা রয়েছে।

এছাড়া ভারতের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়েছে, হামবুর্গে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিংপিং এর মধ্যে একাধিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। জার্মানিতে অনুষ্ঠিত ঐ বৈঠকের উল্লেখ করে বাগলে বলেন, হামবুর্গে দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে কথা হয়েছে। সেখানে বিভিন্ন ইস্যু উঠে এসেছে। যদিও, ডোকালাম প্রসঙ্গে দু’জনের মধ্যে কথা হয়েছে কি না সেই নিয়ে খোলসা করেননি বাগলে।

অন্যদিকে, দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের কথা অস্বীকার করেছে চীন।