লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল ইসলাম আর নেই :

নিউজ ডেস্ক:  লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল ইসলাম (৭৫) আর নেই। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিলাহি… রাজিউন)।তিনি বেশ কিছুদিন যাবত জ্বর ও কিডনিজনিত রোগে ভুগছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আবু তাহের আজ দুপুরে একথা জানিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুল ইসলামের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

আজ এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী লক্ষ্মীপুর জেলার উন্নয়নে শামসুল ইসলামের অবদানের কথা স্মরণ করে বলেন, ‘তার ইন্তেকালে লক্ষ্মীপুরের জনগণ একজন নিষ্ঠাবান নেতাকে হারালো।’

শেখ হাসিনা মরহুমের আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

মরহুমের পারিবারিক সূত্র জানায়, তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহি রেখে গেছেন। শামছুল ইসলাম সদর উপজেলার বশিকপুর গ্রামের মরহুম হাজী জবেদ উল্লাহ’র ছেলে।

শামছুল ইসলাম সাবেক অতিরিক্ত সচিব ও জেলা পরিষদের প্রশাসক ছিলেন। জেলা পরিষদের নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, মরহুমের নামাজে জানাজা আজ বিকেল ৫টায় শহরের আদর্শ সামাদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। পরে সদর উপজেলার বশিকপুর গ্রামে লাশ দাফন করা হবে।

শামছুল ইসলামের মুত্যুতে লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য একেএম শাহ্জাহান কামাল, নোয়াখালী-২ আসনের সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সমবায় ও কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এবং সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সালাহ্ উদ্দিন টিপু গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন।

শোক বার্তায় নেতৃবৃন্দ শামছুল ইসলামের রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোক-সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।