বৃষ্টির দুর্ভোগে নাকাল রাজধানীবাসী

নিউজ ডেস্ক: মঙ্গলবার সকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টিপাত হয়েছে। কখনো মুষলধারে আবার কখনো বিরতি। বৃষ্টির দাপটে ভোগান্তি পোহাতে হয় রাজধানীবাসীকে। খানাখন্দে ভরা বেশিরভাগ রাস্তা ডুবে থাকায় পথে পথে বিকল হয়েছে গাড়ি। তবু কর্মজীবী মানুষের ঘরে বসে থাকার ‘জো’ নেই, বাসা ছেড়ে কাজের তাগিদে বের হতে হয়েছে বাইরে।

বৃষ্টিতে পানি জমে তৈরি হয়েছে জলাবদ্ধতা। ড্রেনের ময়লা পানির সঙ্গে বৃষ্টির পানি মিশে রাজধানীর সড়কগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে যায়, তাতে ভোগান্তিতে পড়েন ঢাকাবাসী।

সরেজমিনে দেখা যায়, রাজধানীর অপেক্ষাকৃত নিচু এলাকায় হাঁটুপরিমাণ পানি জমে গেছে। কোথাও জমেছে কোমর পানি। সেই পানিতে ভাসছে নোংরা-আবর্জনা। বিশেষ করে খিলক্ষেত, শান্তিনগর, মালিবাগ, মৌচাক, আরামবাগ, বাড্ডা, রামপুরা, কাওরান বাজার, মিরপুরের শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়া, খিলগাঁও, মৌচাক, কাকরাইল ও পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকাসহ বেশ কিছু স্থানে পানি জমে গেছে। যার ফলে যানবাহন চলাচলে ভোগান্তি বেড়েছে।

মগবাজার মোড় থেকে শুরু করে মৌচাক, মালিবাগ ও শান্তিনগর এলাকার মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই। পুরো এলাকার রাস্তায় জমেছে কাদাপানি। সেই সঙ্গে স্যুয়ারেজের পানি উপচে পড়ছে।

জলাবদ্ধতার সঙ্গে বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় সড়কে যান চলাচল কিছুটা কম দেখা গেছে। ফলে বৃষ্টিতে ঘর থেকে বের হয়ে গন্তব্যে যেতে লোকজনকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।অন্যদিকে সুযোগ বুঝে রিকশা ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালকরা যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছেন বলে অনেকে অভিযোগ করেছেন।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, সিলেট, ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।