হানিফ ফ্লাইওভারের সিঁড়ি অপসারণের দাবি

নিউজ ডেস্ক: মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে উঠার জন্য সায়দাবাদ ও যাত্রাবাড়ী এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে স্থাপিত সিঁড়ি অপসারণ করতে হবে। এর আগে হাইকোর্ট দুই সপ্তাহের মধ্যে অপসারণের জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র, স্বরাষ্ট্র সচিব, ডিএমপি পুলিশ কমিশনার ও ওরিয়ন ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে রিট টু আপিল করে ওরিয়ন ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড।

আজ সোমবার প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের তিন বিচারপতির বেঞ্চ এ আবেদন খারিজ করে দিয়ে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখে। এর ফলে ওই এলাকার ফ্লাইওভারে উঠার জন্য যেসব সিঁড়ি স্থাপন করা হয়েছে। তা এখনই অপসারণ করতে হবে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফ্লাইওভার রয়েছে, মাঝপথে ফ্লাইওভারে ওঠার জন্য সিঁড়ি কোথাও নেই। সিড়ি অপসারণ করতেই হবে।

আজ আবেদনের পক্ষে ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন শুনানি করেন।

প্রসঙ্গত, যাত্রাবাড়ী ফ্লাইওভারে উঠার জন্য ৬ থেকে ৭টি সিঁড়ি ও বাসস্টপেজ আছে। এসব বাসস্টপেজে বাস ও লেগুনায় যাত্রী ওঠানামা করে। ফলে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে।এছাড়া বাসসহ যাত্রী পরিবহনকারী ছোট-বড় বিভিন্ন যান এসব স্টপেজে থামার কারণে প্রায়ই যানজট থাকে। অন্যান্য ফ্লাইওভারে সিঁড়ি ও বাসস্টপেজ নেই। এসব যুক্তি তুলে ধরে ফ্লাইওভারে বাসস্টপেজ ও সিঁড়ি অপসারণ চেয়ে রিট করা হয়েছে।