রায়পুরে ডেকোরেটর ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যা

লক্ষীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষীপুরের রায়পুর পৌর শহরে ডেকোরেটর ব্যবসায়ী নুরনবীকে গলাকেটে হত্যা করছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

নিহত নুরনবী দীর্ঘ ২২ বছর ধরে রায়পুর শহরে ডেকোরেটর ব্যবসা করে আসছিলেন। সে ফরিদগঞ্জের সাহেবগঞ্জ এলাকার মৃত ইউনুস মিয়ার ছেলে।
সোমবার দুপুরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশ সুপার আসম মাহাতাব উদ্দিনসহ পুলিশের ঊধ্বর্তন কর্মকর্তারা।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রায়পুর পৌর শহরের বিসমিল্লাহ ডেকোরেটর নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে তার। দীর্ঘ ২২ বছর যাবৎ নুরনবী এখানে ব্যবসা করে আসছেন।

রোববার রাতে প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে সে বাসায় চলে যান। রাতের কোন এক সময়ে সন্ত্রাসীরা বাসায় ঢুকে তাকে শ্বাসরোধ ও গলাকেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়।
সকালে বাসায় কোনো সাড়া শব্দ না পাওয়ায় স্থানীয়দের সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে নুর নবীকে। পরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।
আমিন কমপ্লেক্সের সামছুদ্দিনের বাসা ভাড়া নিয়ে একাই থাকতেন ব্যবসায়ী নুর নবী।
রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।