৩১৪০ কোটি টাকার মূলধন সংগ্রহ

নিউজ ডেস্ক: সদ্য সমাপ্ত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে শেয়ারবাজার থেকে ১২৭ কোম্পানি সর্বমোট ৩ হাজার ১৪০ কোটি টাকার মূলধন সংগ্রহ করেছে। আগের অর্থবছরের ২০১৫-১৬ তুলনায় এর পরিমাণ প্রায় ৪০০ কোটি টাকা বা ১১ শতাংশ কম। প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

সূত্র জানায়, সদ্য সমাপ্ত অর্থবছরে আইপিও প্রক্রিয়ায় ছয়টি কোম্পানি মোট ২০০ কোটি টাকার মূলধন সংগ্রহ করে। এর পাঁচটি এরই মধ্যে তালিকাভুক্ত হয়েছে। এ ছাড়া চারটি তালিকাভুক্ত কোম্পানি রাইট শেয়ার বিক্রি করে মোট এক হাজার ৪১ কোটি ৯৬ লাখ টাকা মূলধন সংগ্রহ করে। তার মধ্যে দুটি প্রিমিয়াম বাবদ সংগ্রহ করে ১৮৩ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। এ ছাড়া ১১৭টি তালিকাভুক্ত কোম্পানি লভ্যাংশ হিসাবে ১৮৮ কোটি বোনাস শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে এক হাজার ৮৯৮ কোটি টাকা মূলধন বৃদ্ধি করেছে।

ডিএসই সূত্র আরও জানিয়েছে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে দুটি মিউচ্যুয়াল ফান্ডসহ ১১ কোম্পানি আইপিও প্রক্রিয়ায় মোট ৮৫৮ কোটি ৩০ লাখ টাকার মূলধন সংগ্রহ করে। এর মধ্যে পাঁচ কোম্পানি প্রিমিয়াম বাবদ ৫১৪ কোটি ৬০ লাখ টাকা সংগ্রহ করেছিল। এ ছাড়া ওই অর্থবছরে দুটি কোম্পানি রাইট শেয়ার বিক্রি করে মোট ৩১৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকার মূলধন সংগ্রহ করে । এর মধ্যে প্রিমিয়াম ছিল ৯২ কোটি ২ লাখ টাকা।

আর ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১০৯টি কোম্পানি লভ্যাংশ হিসেবে ২২৫ কোটি বোনাস শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে দুই হাজার ২৬৫ কোটি টাকা মূলধন বৃদ্ধি করেছিল। সূত্র আরও জানায়, মূলধন উত্তোলন কিছুটা কমলেও ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ডিএসইতে শেয়ার লেনদেন আগের অর্থবছরের ৬৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ বেড়েছে। গত অর্থবছরে এ বাজারে মোট লেনদেন ১ লাখ ৮০ হাজার ৫২২ কোটি টাকা।

এর আগের অর্থবছরে যা ছিল ১ লাখ ৭ হাজার ২৪৬ কোটি টাকা। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ২৪৭ কার্যদিবসে দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৪৩৪ কোটি ১৯ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার। তবে সদ্য সমাপ্ত অর্থবছরের ২৩৯ কার্যদিবসে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়ে ৭৫৫ কোটি ৩২ লাখ টাকা ছাড়ায়, যা বিগত পাঁচ অর্থবছরের সর্বোচ্চ। শুধু শেয়ার লেনদেনই নয়, গত অর্থবছরে তালিকাভুক্ত প্রায় সব শেয়ারের বাজারদর বেড়েছে। তার প্রভাবও ছিল বাজার মূল্যসূচকে।