আমরা বন্যাকবলিত জনগনের পাশে আছি: মুহিত

নিউজ ডেস্ক:  সিলেটে বন্যাকবলিত এলাকায় সরকারি ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম হচ্ছে—বিএনপির এমন অভিযোগকে ‘আনরিয়েলিস্টিক কথা’ বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আজ শুক্রবার বিকেলে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুরে বন্যাকবলিত মানুষের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী বিতরণকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি এ মন্তব্য করেন। আমরা বন্যাকবলিত জনগনের পাশে আছি।

বন্যার্ত মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম হচ্ছে—এ অভিযোগ বিএনপির।
এ ব্যাপারে আপনি কী বলেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি সম্পর্কে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না। তাঁরা সব সময় আনরিয়েলিস্টিক কথা বলে। আই ডোন্ট কেয়ার।’

বন্যাদুর্গত এলাকায় যথেষ্ট পরিমাণ খাদ্য ও অর্থসহায়তা প্রদান করা হচ্ছে জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে প্রচুর খাদ্য মজুত রয়েছে। খাদ্যের কোনো অভাব নেই। বিদেশ থেকেও চাল আমদানি করা হচ্ছে।’

অর্থমন্ত্রীর ত্রাণ বিতরণের আগে সংক্ষিপ্ত সভা হয়। সিলেটের জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ারের সভাপতিত্বে সভায় স্থানীয় সাংসদ মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী, সাংসদ কেয়া চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, জেলার সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সিলেটের নয়টি উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতিতে অর্থমন্ত্রী আজ দুপুরে সিলেট পৌঁছান। দুপুরে সিলেট এম এ জি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে অভ্যর্থনা জানায় মহানগর যুবলীগ। এ সময় আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা ছিলেন। অর্থমন্ত্রী অভ্যর্থনা জানানো নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বক্তৃতায় বলেন, ‘বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার সরকারকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে। এ জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে।’

নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ ও মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক আলম খান বক্তব্য দেন।