মঠবাড়িয়ায় স্বতন্ত্র এমপির সংবাদ সম্মেলন

মজিবর রহমান মঠবাড়িয়া পিরোজপুর: পিরোজপুর-৩ মঠবাড়িয়া আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ডা. রুস্তুম আলী ফরাজি তাঁর সংসদীয় আসন মঠবাড়িয়ার উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। বুধবার দুপুরে মঠবাড়িয়া পৌর শহরের ডাকবাংলো সভাকক্ষে তিনি গতকাল মংগলবার মঠবাড়িয়ার আওয়ামীলীগের একাংশের বিক্ষোভ মিছিল ও প্র তিবাদ সভায় বিভিন্ন পকল্পে ব্যপক দূরনী্তির অভযোগ উঠায় এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। এতে স্থানীয় বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক,আঞ্চলিক দৈনিক ও অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে এমপি ডা. রুস্তুম আলী ফরাজি লিখিত বক্তব্য পাঠ করে বলেন, সম্প্রতি চরখালী-মঠবাড়িয়া-পাথরঘাটা সড়ক মহাসড়কে উন্নীত করণে একনেকে অর্থ বরাদ্দ অনুমোদ লাভ করেছে। মহা সড়ক বাস্তবায়ন হলে উপকূলীয় অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যাপক পািরবর্তন ঘটবে। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিচ্ছে। বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে এমপি ফরাজি মঠবাড়িয়ায় তাঁর উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরে বলেন, আমি মঠবাড়িয়ার মাটি ও মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করছি। আমার জনগনের ভালবাসা ও আমার উন্নয়ন কাজে ঈর্ষান্বিত হয়ে কতিপয় মানুষ মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। মঠবাড়িয়ার উন্নয়ন কর্মকান্ডে কোন দুর্নীতি হয়নি দাবি করে তিনি আরও বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উন্নয়ন প্রকল্পের যথাযথ দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে এসব উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করছে। আমি এসব প্রকল্পের ঠিকাদার না । আমার পরিবারের কোন সদস্য কেউ ঠিকাদারীর সাথে জড়িত নয়। কোন উন্নয়ন কাজের মান খারাপ হলে প্রকল্পে জড়িত প্রশাসনের কর্মকর্তারা দ্রুত যাতে ব্যবস্থা নেন সে জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে আনীত দুর্নীতির অভিযোগ প্রত্যাখান করে তিনি বলেন, দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে সততার সাথে রাজনীতি করে আসছি। আমি একটি টাকাও নিয়মের বাইরে ব্যয় করিনি। এ কারনেই মঠবাড়িয়ার মানুষ আমাকে পর পর ছয়বার সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। আমার জনসমর্থনে ঈর্ষানিত হয়ে একটি কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমি চ্যালেন্স করে বলতে পারি আমার বিরুদ্ধে কেউ যদি উন্নয়ন কাজে দুর্নীতি প্রমান করতে পারেন আমি সাংসদ থেকে পদত্যাগ করবো। পারলে আমার বিরুদ্ধে যারা বানোয়াট অপপ্রচার চালাচ্ছেন তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে দেখান জনগনের ভোট কত পান।
তিনি আরও বলেন, এসব অপপ্রচার না চালিয়ে সবাই মিলে মঠবাড়িয়ার মাটি ও মানুষের স্বার্থে উন্নয়নে অবদান রাখি।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগে যোগদান করে নৌকার ব্যানারে নির্বাচন করবেন এমন গুঞ্জনের প্রশ্ন এড়িয়ে তিনি বলেন, স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হলেও বর্তমান সরকারের সকল উন্নয়ন কাজের আমি সমর্থক। এ সরকার সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তবে দেশ ও মানুষের স্বার্থে সরকারের গঠনমূলক সমলোচনাও করি।

সংবাদ সম্মেলনে এমপি ডা, ফরাজির সহধর্মীনি খাদিজা বেগম খুশবু ও মঠবাড়িয়া মহিউদ্দিন মহিলা কলেজের প্রভাষক শাহনাজ পারভীন ও সমাজসেবক হরিদাস শিপন উপস্থিত ছিলেন।