কুমিল্লায় দুদকের মামলায় নির্বাহী প্রকৌশলীর ১০ বছরের সাজা

বারী উদ্দিন আহমেদ বাবর, কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লায় প্রায় ৩৯ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) কুমিল্লার সাবেক নির্বাহী প্রকৌশলী হারুনুর রশিদকে ১০ বছরের কারাদন্ডাদেশ দিয়ে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার কুমিল্লার স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক ইসমাইল হোসেন এ আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন দুদক কুমিল্লা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ।

জানা গেছে, হারুনুর রশিদ এলজিইডি-কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী পদে দায়িত্ব পালনকালে ল্যাবরেটরি টেস্টের আদায়কৃত রাজস্বের ৩৮ লাখ ৯৪ হাজার ৭৩৫ টাকা আত্মসাত করেন। এ ব্যাপারে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) প্রধান কার্যালয়ের তৎকালীন উপ-পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের ২২ আগস্ট কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটির তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন দুদক প্রধান কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক সিলভিয়া ফেরদৌস। কুমিল্লার স্পেশাল জজ আদালত বুধবার এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

দুদক-কুমিল্লা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ জানান, মামলায় বিজ্ঞ বিচারক এলজিইডি-কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী হারুনুর রশিদকে ১০ বছরের কারাদন্ড এবং ১ লাখ টাকা জরিমানার রায় দিয়েছেন। তাকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।