ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের আইসিইউ’তে অগ্নিকান্ড

মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে বর্তমানে আইসিইউ কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে আইসিইউ স্টোররুমে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় আধাঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র ওয়্যারহাউস অফিসার বলেন, ‘কীভাবে আগুন লেগেছে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তদন্ত শেষে বলা যাবে।’ একটি সূত্র দাবী করেছে, ইয়ারকন্ডিশনার বিষ্ফোরণে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত ঘটে। এদিকে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ৬ রোগীর মধ্যে ২জন মারা গেছে। তবে তাদের ৮০ ভাগ মৃত্যুঝুঁকি ছিলো বলে কর্তব্যরত চিকিসৎকরা জানান। বাকী ৪জন রোগীকে সিসিইউতে সিমিত আকারে আইসিইউ সেবা দেয়া হচ্ছে।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল ও আইসিইউর ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ অধ্যাপক ডাঃ আ. ন. ম. ফজলুল হক পাঠান বলেন, সকাল ১০টার দিকে হঠাৎ করেই হাসপাতালের আইসিইউর স্টোররুমে আগুনের সূত্রপাত হয়। এ সময় রোগীরা চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন। তবে আগুন ছড়িয়ে পড়ার আগেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তিনিসহ তার স্টাফরা মুমূর্ষু অবস্থায় চিকিৎসাধীন ৬জন রোগীকে নিরাপদে আইসিইউ থেকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যান।

এতে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে জানতে চাইলে ডাঃ ফজলুল হক বলেন, আগুনে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টের যন্ত্রপাতি, মনিটর, এক্স-রে মেশিন, আলট্রাসনোগ্রাম, ইসিজি, মনিটর, এসিসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি পুড়ে গেছে। তবে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। ফায়ার ব্রিগেটের সাহসী কর্মীরা জীবণের ঝুঁকি নিয়ে আগুনের যাতে বিস্তৃতি না ঘটে এবং আগুন নিভাতে জানপণ চেষ্টা করে দ্রæত সময়ের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

অধ্যাপক ডাঃ আ. ন. ম. ফজলুল হক পাঠান জানান, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাঃ নাসির উদ্দিন আহমেদ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ আব্দুল গণিকে সভাপতি এবং সহকারী পরিচালক ডাঃ লক্ষী নারায়ন মজুমদারকে সদস্য সচিব করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি তিন কর্মদিবসের মধ্যে রিপোর্ট প্রদান করবে।

ডাঃ পাঠান আরো জানান, অগ্নিকান্ডের খবর শুনে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ এম. এ আজিজ ক্ষতিগ্রস্থ আইসিইউ পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি স্বান্থ্যমন্ত্রী মোঃ নাসিম ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের
সাথে অগ্নিকান্ড ও ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি জানান। স্বান্থ্যমন্ত্রী এর প্রতিউত্তরে দ্রæসময়ের মধ্যে বিশ্বমানের এই আইসিইউ এর ক্ষতিগ্রস্থ যন্ত্রপাতি সরবরাহ করে পুরোদমে চালু করার আশ্বাস প্রদান করেন।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ আব্দুল গণি জানান, তদন্ত কমিটির কাজ শুরু হয়ে গেছে। গণপূর্ত বিভাগ বিভাগ আইসিইউ রুমটি রং করবে এবং ভেঙ্গে যাওয়া গøাসগুলো লাগানোর পর বৃহস্পতিবার থেকে সিমিত আকারে আইসিইউ চালু করা হয়েছে।