বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের কাছেই জেগে ওঠেছে নতুন দ্বীপ

নিউজ ডেস্ক:  সম্প্রতি নতুন এক দ্বীপের জন্ম নিয়ে বিজ্ঞানীমহলে বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে। কিছু দিন আগেই ‘জিল্যান্ডিয়া’ নামে এক নতুন মহাদেশের খোঁজ পেয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা। তবে এবার সে রকম কিছু নয়, শিরোনাম হওয়ার অন্যতম কারণ, এটির অবস্থান বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের মাত্র দেড়শো ফুট দূরত্বে।

আটলান্টিক মহাসাগরের উপর জেগে উঠেছে এক নতুন দ্বীপ। নর্থ ক্যারোলিনার কেপ পয়েন্টে একটি ‘শেল আইল্যান্ড’ এর খোঁজ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের খুব কাছে হওয়ায় গত এপ্রিল মাস থেকেই দ্বীপটি চোখে পড়েছিল পর্যটকদেরও। আর তখন থেকেই একটু একটু করে রোজ মাথা তুলছে দ্বীপটি।
প্রায় এক মাইল বিস্তৃত অর্ধচন্দ্রাকার এই দ্বীপের নামকরণ করা হয়েছে ‘শেলি আইল্যান্ড’। বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের বেশ কিছুটা আগে পর্যন্ত ভিড় জমানো পর্যটকদের, এই দ্বীপের কাছে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, দ্বীপটি অত্যন্ত ভয়ঙ্কর। তার চারিদিকে বিদ্যুৎ তরঙ্গ রয়েছে। প্রচুর হাঙর ও স্টিং রে’র বসবাস ওই দ্বীপে। তাছাড়া তীব্র স্রোতের মধ্যে দ্বীপটি ডুবে যাওয়ার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

সেই কবে থেকেই আটলান্টিক মহাসাগরের এই বিশেষ অঞ্চল নিয়ে মানুষের নানা রহস্য। গল্পে, উপন্যাসে এই অঞ্চলটির বিশেষ নাম ‘শয়তানের ত্রিভুজ’। বলা হয়, বারমুডা ট্রায়াঙ্গলের কাছে গিয়ে নাকি বহু জাহাজ ও উড়োজাহাজ নিখোঁজ হয়ে গেছে। বহু চেষ্টা করেও সেগুলির কোনো খোঁজ মেলেনি। এই সব অন্তর্ধান-রহস্যের জট আজও খোলেনি। প্রাকৃতিক দুর্যোগ, দুর্ঘটনা, নাকি অলৌকিকতা, তারও কোনো প্রমাণ মেলেনি। বিজ্ঞানীরা বলছেন, যেভাবে হঠাৎ জেগে উঠেছে দ্বীপটি, সে ভাবেই এক দিন চোখের নিমেষে মিলিয়েও যেতে পারে ‘শেলি আইল্যান্ড’। বিবিসি।