চিলির ব্র্যাভোর কাছে স্বপ্নভঙ্গ পর্তুগালের

নিউজ ডেস্ক:  গোলরক্ষক ক্লডিও ব্র্যাভোর পারফরমেন্সে রোনালদোর পর্তুগালকে টাইব্রেকারে ৩-০ গোলে পরাজিত করে কনফেডারেশন্স কাপের ফাইনালে উঠেছে চিলি।

বুধবার রাতের এ ম্যাচে পর্তুগালের প্রথম তিন শ্যুটার রিকার্ডো কুয়ারেসমা, হোয়া মোটিনহো ও নানির তিনটি শটই আটকে দিয়ে চিলিকে ফাইনালের টিকেট উপহার দেন ম্যানচেস্টার সিটি গোলরক্ষক ব্র্যাভো।

বিপরীতে আরটুরো ভিডাল, চার্লস আরানগুইজ ও এ্যালেক্সিস সানচেজের শট আটকানোর ক্ষমতা ছিল না পর্তুগীজ গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিওর।

ম্যাচ শেষে ৩৪ বছর বয়সী ব্র্যাভো সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, এই ফলাফল ও যেভাবে সবাই খেলেছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট। কিন্তু এখনো আমরা কিছুই জয় করতে পারিনি।

রোববার সেন্ট পিটার্সবার্গে অনুষ্ঠিতব্য ফাইনালে চিলির প্রতিপক্ষ হবে আজ সোচিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দ্বিতীয় সেমিফাইনালে জার্মানি বনাম মেক্সিকোর মধ্যে বিজয়ী দল।

চিলির কোচ হুয়ান এন্টোনিও পিজ্জি বলেছেন, এই দলকে নিয়ে আমি দারুন গর্বিত। ক্লডিও পুরো ম্যাচে দারুন কতগুলো বল রক্ষা করেছে যা আমাদেরকে ম্যাচে টিকিয়ে রেখেছিল। খেলোয়াড়রা কোথায় শট নিচ্ছে তা চিন্তা করার দক্ষতা তার মধ্যে রয়েছে। এখন আমাদের সামনে প্রতিপক্ষ যেই আসুক না কেন সেটা কোন বিষয় নয়, আমাদের এখন একটাই লক্ষ্য ফাইনালে জয়ী হওয়া।

দ্বিতীয় সেমিফাইনালে পরাজিত দল রোববার মস্কোতে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে পর্তুগালের মুখোমুখি হবে।

নির্ধারিত সময়ে খেলা গোলশূন্য ড্র থাকায় গতকাল ম্যাচটি অতিরিক্ত সময়ে গড়ালেও একেবারে শেষ মুহূর্তে চিলি জয় পেয়েই গিয়েছিল। কিন্তু ভিডাল ও বদলী মার্টিন রডরিগুয়েজের পরপর দুটি শট বারে লাগাটা পর্তুগালের জন্য সৌভাগ্যই বলা যায়।

কাজানের এই ম্যাচে পরাজয় পর্তুগীজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর জন্য হতাশারই বটে। আগামী মাসে মাদ্রিদের আদালতে কর ফাঁকির অভিযোগে হাজিরা দিতে হবে রিয়াল মাদ্রিদের এই তারকাকে। এখনো স্পেনে তার ভবিষ্যৎ পুরোপুরি নিশ্চিত নয়। কনফেডারেশন্স কাপের গ্রুপ পর্বের তিনটি ম্যাচেই তিনি ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন। কাজানে ম্যাচটি শুরু হবার ঠিক আগে ম্যানচেস্টার সিটির নতুন চুক্তিকৃত বার্নান্ডো সিলভা পায়ের ইনজুরিতে পড়ায় পর্তুগীজ স্কোয়াড থেকে ছিটকে যান।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪-০ গোলের বড় জয়ের ম্যাচে তিনি মূল একাদশে ছিলেন। পেপে নিষেধাজ্ঞায় থাকায় সেন্টার ব্যাকে হোসে ফন্টের সাথে ছিলেন ব্রুনো আলভেস। আক্রমনভাগে এসি মিলানের ২১ বছর বয়সী স্ট্রাইকার আন্দ্রে সিলভা ছিলেন রোনাল্ডোর সঙ্গী। কিন্তু চিলির শক্তিশালী রক্ষনভাগের বিপরীতে এই জুটি খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। এদিকে চিলি কোচ পিজ্জি গত বৃহস্পতিবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানির সাথে ১-১ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচটির দলের ওপরই আস্থা রেখেছিলেন।

ম্যাচের শুরুতেই উভয় গোলরক্ষক ভাল দুটি বল রক্ষা করে দু’দলকেই শুরুতেই গোল হজম থেকে বাঁচিয়েছেন। ছয় মিনিট পরে সানচেজের দারুন একটি পাস থেকে এডুয়ার্ডো ভারগাসের শট আটকে দেন প্যাট্রিসিও। পরের মিনিটেই রোনাল্ডোর ক্রস থেকে আন্দ্রে সিলভা ব্র্যাভোকে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হন। আরানগুইজ দুইবার চেষ্টা করেও চিলিকে গোল উপহার দিতে পারেননি।

ভারসগাসের শক্তিশালী ভলি প্যাট্রিসিও কোনরকমে রক্ষা করেন। কাউন্টার এ্যাটাক থেকে রোনাল্ডোর শট ব্র্যাভো না আটকালে বিরতির পরপরই হয়ত পর্তুগাল এগিয়ে যেতে পারতো। ভিডালের দুর পাল্লার শট অল্পের জন্য পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। রোনাল্ডোর ফ্রি-কিকও একইভাবে অল্পের জন্য গোলের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। এভাবেই কোন দল ডেডলক ভাঙ্গতে না পারায় ম্যাচটি অতিরিক্ত সময়ে গড়ায়।