পর্তুগালে দক্ষিণ এশীয় চলচ্চিত্র মেলায় বাংলাদেশের ছবি

নিউজ ডেস্ক: ‘মোশত্রা দে সিনেমা সুল আসিয়াতিকো-সিনেমেলা’-র পোস্টার পর্তুগালে প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার চলচ্চিত্র মেলা ‘মোশত্রা দে সিনেমা সুল আসিয়াতিকো-সিনেমেলা’। ইউরোপে দক্ষিণ এশিয়ার চলচ্চিত্রকে তুলে ধরা, দক্ষিণ এশীয় প্রবাসীদের স্বদেশের সিনেমা দেখার সুযোগ দান এবং ইউরোপ ও এশিয়ার মাঝে চলচ্চিত্রশিল্পের সেতু নির্মাণ করতে এই আয়োজন করছে পর্তুগালে অবস্থিত আন্তর্জাতিক ইনডিপেনডেন্ট ফিল্ম প্রোডাকশন কোম্পানি ‘ভিলা দু সিনেমা’।

৩০ জুন থেকে ২ জুলাই পর্যন্ত রাজধানী লিসবনে আয়োজিত তিন দিনের এ চলচ্চিত্র মেলা উৎসর্গ করা হয়েছে বাংলাদেশের সিনেমার বরেণ্য নির্মাতা তারেক মাসুদকে। এতে বাংলাদেশের ছয়টি ও ভারত-পাকিস্তান যৌথ প্রযোজিত একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, স্পেন-বাংলাদেশের ১টি, নেপালের দুটি, ভুটানের একটি ও বাংলাদেশের পাঁচটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। এবারের উৎসব তারেক মাসুদকে উৎসর্গ করা হয়েছে।

‘মোশত্রা দে সিনেমা সুল আসিয়াতিকো-সিনেমেলা’র প্রডাকশন ডিরেক্টর আনাপাউলা মারভাউ জানান, ‘দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর চলচ্চিত্র নিয়ে পর্তুগালে প্রথমবারের মতো এই সিনেমেলার আয়োজন এশীয় কমিউনিটি ও ইউরোপীয় দর্শকদের জন্য অনেক বড় সুযোগ। প্রথমবার এই উৎসব বাংলাদেশকে উৎসর্গ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে অন্য দেশগুলোর সিনেমাকেও আমরা ফোকাস করব। ইউরোপ ও এশিয়ার মাঝে চলচ্চিত্র সেতু নির্মাণ করতে ভিলা দু সিনেমা কাজ করছে।’

এবারের সিনেমেলায় প্রদর্শিত হবে বাংলাদেশের মোরশেদুল ইসলামের চলচ্চিত্র ‘চাকা’, অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’, আবু শাহেদ ইমনের ‘জালালের গল্প’, তৌকীর আহমেদের ‘অজ্ঞাতনামা’, মেহের আফরোজ শাওনের ‘কৃষ্ণপক্ষ’ ও তারেক মাসুদের চলচ্চিত্র ‘রানওয়ে’। এ ছাড়া দেখানো হবে ভারত-পাকিস্তান যৌথ প্রযোজিত ‘মাহিন জিয়া’ ও বাংলা কমিউনিটি নিয়ে নির্মিত পারমিতা ধরের ‘ইন বিটুইন’, ভুটানের অরুণ ভট্টরায়ের ‘টিনটিন ইন ভুটান’, নেপালের সুজিত বিদারীর ‘সাবিত্রী’ ও কালা সাংরুলার ‘ভুতা জামা’, ভারতের দেবাশীষ মাখিজার ‘ডোন্ট ক্রাই ফর রাহিম লেকক’ এবং বাংলাদেশের নুরুজ্জামান খানের ‘ম্যান উইথ নো নেম’, রাজিব আহসানের ‘পাপেট’, রহমান মনির ‘সি ইউ এগেইন’, আবিদ মল্লিকের ‘পথ’ ও পারভেজ রাজনের ‘তারেক মাসুদ’।