গ্রীসে প্রবাসী বাংলাদেশীর ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্তকরণ অনুষ্ঠান

নিউজ ডেস্ক: গ্রীসের বাংলাদেশ দূতাবাসে প্রথমবারের মতো আজ ১৪ জুন ২০১৭ অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো প্রবাসী বাংলাদেশীদের বহির্গমন ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্তিকরণ অনুষ্ঠান। এর মধ্য দিয়ে প্রবাসে থেকেও বাংলাদেশীরা খুব সহজে বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণায়ের অধীন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের বহির্গমন ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন। এই অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে প্রবাসীরা সরকার প্রদত্ত নানা ধরণের সুযোগ সুবিধা গ্রহণে সক্ষম হবেন বলে জানানো হয়েছে।

এ নিয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণায়ের যুগ্ম সচিব নারায়ন চন্দ্র বর্মা বলেন, প্রবাসে বৈধভাবে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীসহ সকল প্রবাসী কর্মী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে সরকার বদ্ধপরিকর। ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস, এনডিসি আলোচনায় অংশ নিয়ে গুলশানে ১৬০ কাঠা জায়গায় প্রবাসীদের জন্য হাসপাতাল, শিশুদের জন্য স্কুল, কলেজ প্রতিষ্ঠা ইত্যাদিসহ সরকার গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচীর কথা তুলে ধরেন।

তিনি জাতীয় অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদানের কথা তুলে ধরে প্রবাসী বাংলাদেশীদের ভূমিকার কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন। গাজী মোহাম্মদ জুলহাস, এনডিসি প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের মাধ্যমে প্রবাসীদের জন্য বিভিন্ন আর্থিক সুবিধাদির কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশের সব জেলায় এর কার্যক্রম বিস্তৃত করার কথা জানান। নতুন অর্থ বছরে প্রবাসীদের রেমিটেন্সের উপর থেকে কমিশন প্রত্যাহারের সরকারী উদ্যোগের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বৈধ পথে রেমিন্টেন্স পাঠানোর উপর জোর দেন। বহির্গমন ডাটাবেজের কার্যক্রম বেগবান করার জন্য প্রয়োজনীয় জনবল এবং অন্যান্য সহায়তা প্রদানেরও আশ্বাস দেন তিনি।

গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন বলেন, শেখ হাসিনার সরকার প্রবাসীদের কল্যাণের লক্ষ্যে সবসময়ই সজাগ রয়েছেন। সরকারের কর্মসূচী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দূতাবাস গৃহীত বিভিন্ন জনবান্ধব কর্মসূচীর কথা উল্লেখ করে তিনি প্রবাসী বাংলাদেশীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি প্রবাসী বাংলাদেশীদের বাংলাদেশ সরকারের ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্তিকরণ কর্মসূচী সফল করার জন্য সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

উল্লেখ্য, গত ৮ জুন ২০১৭ তারিখে ঢাকা থেকে গ্রীসের বাংলাদেশ দূতাবাসের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সরকারের ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্তকরণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণায়ের মন্ত্রী নুরুল ইসলাম। ইতোমধ্যে প্রবাসী বাংলাদেশীদের মধ্যে এ নিয়ে ব্যাপক সাড়া জেগেছে। প্রবাসীদের জন্য সরকারের প্রশংসনীয় উদ্যোগকে প্রবাসীরা অত্যন্ত সময়োপযোগী পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করেন।