শেষ রক্ষা হচ্ছে না সিটিসেলের

নিউজ ডেস্ক: বকেয়া অর্থ পরিশোধ করতে না পারায় দেশের প্রথম বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের লাইসেন্স শেষ পর্যন্ত বাতিলই করতে যাচ্ছে সরকার।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ ইতোমধ্যে এই প্রক্রিয়া শুরু করেছে। মঙ্গলবার টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম জানিয়েছেন সিটিসেলের লাইসেন্স বাতিল আইনি প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন হবে।

এরআগে লাইসেন্স বাতিলের অনুমতি চেয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) থেকে গত ৮ জুন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে চিঠি পাঠানো হয়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, ৪৭৭ কোটি টাকা রাজস্ব বকেয়া থাকায় গত বছরের ৩১ জুলাই বিকল্প সেবা গ্রহণের জন্য বিজ্ঞপ্তি দিয়ে গ্রাহকদের পরামর্শ দেয় বিটিআরসি।

গত বছরের ২০ অক্টোবর সিটিসেলের তরঙ্গ স্থগিত ও কার্যক্রম বন্ধ করে মহাখালীতে অপারেটরটির কার্যালয় সিলগালা করে দেওয়া হয়।

পরে আইনি লড়াইয়ে সাময়িকভাবে তরঙ্গ চালুর অনুমতি পায় সিটিসেল। এরপর আদালতের নির্দেশনায় দেনার প্রায় ২৫০ কোটি টাকা পরিশোধ করেলেও বাকি টাকা বকেয়া রয়ে গেছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ জানায়, আদালতের রায় অনুযায়ী, বকেয়া পরিশোধ এবং প্রতিমাসের স্পেকট্রাম ফি দিতে হবে সিটিসেলকে। কিন্তু সেগুলো বকেয়া থাকায় এখন অপারেটরটির লাইসেন্স বাতিল করতে যাচ্ছে সরকার।