বিসিএস ইনফরমেশন এসোসিয়েশনের ইফতারে তথ্যমন্ত্রী

তথ্য ক্যাডারের কর্মকর্তাদের কাজের মাধ্যমে সরকার ও গণমাধ্যমের মধ্যে যে সার্বক্ষণিক সেতুবন্ধ রচিত হয়ে চলেছে, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বেইলী রোডে অফিসার্স ক্লাবে বিসিএস ইনফরমেশন এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন। একইসাথে, সরকারের অবাধ তথ্যপ্রবাহের নীতি বাস্তবায়নে সদাতৎপর থাকতে তথ্য ক্যাডার কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন তিনি।

তথ্য মমন্ত্রণালয়ের সচিব মরতুজা আহমদ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বিসিএস ইনফরমেশন এসোসিয়েশনের সভাপতি প্রধান তথ্য অফিসার কামরুন নাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সম্মানীয় অতিথি সেতু বিভাগের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং রাষ্ট্রপতিরর প্রেস সচিব মো: জয়নাল আবেদীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এসোসিয়েশনের মহাসচিব বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের পরিচালক ফায়জুল হক।

সরকারের সকল মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর দপ্তরে তথ্য ও জনসংযোগের কাজে, পার্বত্য উপজেলাসহ সকল জেলায়, বঙ্গভবন এবং তথ্য মন্ত্রণালয়ের ১৪টি সংস্থায় নিয়োজিত বিসিএস ইনফরমেশন এসোসিয়েশনের সদস্যদের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তথ্য হচ্ছে জ্ঞানের বাহন। তথ্য একদিকে যেমন জীবনের নিত্যসাথী, তেমনি অনেক সময়েই এটি স্পর্শকাতর। আর বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ইনফরমেশন ক্যাডারের কর্মকর্তাবৃন্দের কাজ এই জীবনঘনিষ্ঠ জ্ঞানবাহী স্পর্শকাতর বিষয়টি নিয়েই। তাই একাজে সকল সময়েই যত্নবান ও একাগ্রচিত্ত হওয়ার বিকল্প নেই।’

বাংলাদেশ টেলিভিশনের মমহাপরিচালক এ এস এম হারুন-অর-রশীদ, তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: নাসির উদ্দিন আহমেদ, চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইসতাক হোসেন, গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ জাকির হোসেন, বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালক শচীন্দ্রনাথ হালদার, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহ আলমগীরসহ বিসিএস ইনফরমেশন এসোসিয়েশনের সদস্যবৃন্দ ইফতার অনুষ্ঠানে যোগ দেন।