ঈদের আগে ৩০ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট

নিউজ ডেস্ক: ঈদকে সামনে রেখে নতুন টাকার চাহিদা বৃদ্ধি পায়। বাড়তি চাহিদা মেটাতে প্রতিবছরের মতো এবারও নতুন নোট ছাড়বে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এবার প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট ছাড়া হবে। বৃহস্পতিবার থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সব শাখা অফিসের পাশাপাশি ১৯ বাণিজ্যিক ব্যাংকে বিশেষ কাউন্টার খুলে এসব নোট দেওয়া হবে।

রাজধানীতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মতিঝিল অফিসের পাশাপাশি ২০টি শাখা থেকে নতুন নোট দেওয়া হবে।

নতুন নোট বদলে দেওয়ার সুবিধার্থে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিলিসহ বিভিন্ন শাখা অফিসে বিশেষ কাউন্টার খোলা হবে। এসব কাউন্টার থেকে একজন ব্যক্তি ২, ৫, ১০, ২০ ও ৫০ টাকার একটি করে বান্ডিলের মোট ৮ হাজার ৭০০ টাকার নতুন নোট পাবেন। এর বাইরে কেউ চাইলে ১, ২ ও ৫ টাকার কয়েন নিতে পারবেন। সাধারণত নতুন নোট ছেপে বাজারে ছাড়লে মূল্যস্ফীতি বাড়ে। তবে এসব নোটের অধিকাংশই বাজারে প্রচলিত নোট নতুন করে ছাড়ার ফলে মূল্যস্ফীতির ওপর বাড়তি কোনো চাপ তৈরি হবে না বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা সমকালকে বলেন, চাহিদা বিবেচনায় এবার ৩০ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট মজুদ রাখা হয়েছে। নোট বদলে দেওয়ার পাশাপাশি জাল নোট প্রতিরোধে জনসচেতনতার লক্ষ্যে পত্রিকা ও টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচারসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

নতুন নোট বদলের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসে তিনটি বিশেষ কাউন্টার খোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ঢাকার বাইরে বগুড়া এবং সব বিভাগীয় শহরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শাখা অফিসে বিশেষ কাউন্টার খুলে নতুন নোট দেওয়া হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের অফিস রয়েছে এমন সব শহরের নির্দিষ্ট বাণিজ্যিক ব্যাংকেও একই রকম ব্যবস্থা থাকবে।

ঢাকার যেসব শাখায় মিলবে নতুন নোট: জনতা ব্যাংকের আব্দুল গনি রোড ও রাজারবাগ, সোনালী ব্যাংকের রমনা, অগ্রণী ব্যাংকের এ্যালিফ্যান্ট রোড, রূপালী ব্যাংকের মহাখালী, ন্যাশনাল ব্যাংকের যাত্রাবাড়ী, সিটি ব্যাংকের মিরপুর, সাউথইস্ট ব্যাংকের কাওরানবাজার, এসআইবিএলের বসুন্ধরা সিটি মার্কেট, উত্তরা ব্যাংকের চকবাজার, ঢাকা ব্যাংকের উত্তরা, আইএফআইসি ব্যাংকের গুলশান, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের মোহাম্মদপুর, পূবালী ব্যাংকের সদরঘাট, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের মালিবাগ, ওয়ান ব্যাংকের বাসাবো, ইসলামী ব্যাংকের শ্যামলী, মার্কেন্টাইলের বনানী, ব্যাংক এশিয়ার ধানমন্ডি এবং ডাচ-বাংলা ব্যাংকের দক্ষিণ খানের এসএমই অ্যান্ড কৃশি শাখা।