টাকার গ্লাসের চালান আটক

রনজিত কুমার শীল, চট্টগ্রাম \ মিথ্যা ঘোষণায় চট্টগ্রাম বন্দরে আনা দেড় কোটি টাকার তিনটি গøাসের চালান আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। এতে ৪১ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকি রোধ করা সম্ভব হয়েছে।
শুল্ক গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, চীন থেকে আসা গøাসের কয়েকটি চালানে উন্নতমানের ‘রিফ্লেকটিভ মিরর’ গøাস আমদানি করা হলেও এগুলো কম শুল্কমূল্যের ‘ক্লক অ্যান্ড ওয়াচ’ গøাস এবং ‘ডার্ক বøু’ গøাস ঘোষণায় শুল্কায়ন করে খালাস নেওয়া হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে গত মাসে খালাস প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়। পরে চালান তিনটি শতভাগ কায়িক পরীক্ষা করা হলে মিথ্যা ঘোষণার বিষয়টি ধরা পড়ে।
মেসার্স বি বাড়িয়া গøাস হাউস, পিএআরএম এন্টারপ্রাইজ এবং আশা ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল নামে ঢাকার তিনটি প্রতিষ্ঠান চালানগুলো আমদানি করে। মেসার্স বি বাড়িয়া গøাস হাউস ও পিএআরএম এন্টারপ্রাইজ’র পক্ষে গত ১৯ ও ২৪ এপ্রিল বিল অফ এন্ট্রি দাখিল করে সিঅ্যান্ডএফ প্রতিষ্ঠান এস হুসেইন অ্যান্ড কোং। এতে ক্লক অ্যান্ড ওয়াচ গøাস এবং ডার্ক বøু গøাস ঘোষণা দিয়ে রিফ্লেকটিভ মিরর গøাস খালাসের চেষ্টা করে।
আশা ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের পক্ষে তৃতীয় চালানটি খালাস নিতে গত ৭ মে বিলঅফএন্ট্রি দালিখ করে সিঅ্যান্ডএফ প্রতিষ্ঠান তাসমি এন্টারপ্রাইজ। এতে ডার্ক বøু ফ্লোট গøাস ঘোষণা দেওয়া হয়। কিন্তু কায়িক পরীক্ষায় দেখা ১ হাজার ২৭ বর্গ মিটার পণ্য বেশি পাওয়া যায়। অধিক শুল্কের পণ্য কম শুল্ক দিয়ে খালাস নেওয়ার চেষ্টা করেছিল। পণ্য চালানগুলোর শুল্কায়নযোগ্য মূল্য ৫৭ লাখ টাকা। প্রাথমিকভাবে পরিশোধিত শুল্ক করাদির পরিমাণ ছিল ৫১ লাখ ৭৪ হাজার টাকা। ####